সুভেন্দুর মুখে হরিবল

সন্দেশখালিতেই থাকবেন শুভেন্দু, সেই মত বাড়ি ভাড়াও নিলেনব্যুরো নিউজ,১২ মার্চ: শুভেন্দুর মুখে মতুয়াদের ‘হরি বোল’ শোনা গেল CAA চালু হতেই, মমতাবালা দিলেন ধরনার হুঁশিয়ারি

CAA র বিরোধিতা

সদর দরজায় কড়া নাড়ছে দোরগোড়ায় লোকসভা নির্বাচন। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বা সিএএ (CAA) ঠিক তার আগেই দেশজুড়ে কার্যকর করা হল। কেন্দ্র বিজ্ঞপ্তি জারি করে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই আইন চালুর কথা ঘোষণা করে সোমবার। আর এরপর থেকেই রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়ে গিয়েছে বাংলাজুড়ে।সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাফ জানিয়ে দেন, ‘মানা হবে না কোনও বৈষম্য। প্রতিবাদ চলবে সিএএ-র বিরুদ্ধে।” ⁶

এই কথারই পালটা জবাব দিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘ইচ্ছাকৃত ভাবে উসকানিমূলক মন্তব্য করছেন মুখ্যমন্ত্রী।’ আবার ভোটের আগে সিএএ লাগু করাকে সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম দাবি করেছেন, “তৃণমূল-বিজেপি আঁতাঁত বলে।”

 

তৃণমূল নেত্রী মমতাবালা ঠাকুর সিএএ-র বিরুদ্ধে পালটা ধরনার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন!

এসবের পরিপ্রেক্ষিতে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এদিন এক্স হ্যান্ডেলে মতুয়া সমাজের ধ্বনি ‘হরি বোল’ লিখে পোস্ট করেন। তিনি জানান, ‘‘মোদির গ্যারান্টি মানে প্রতিশ্রুতি পূরণের গ্যারান্টি। ধর্মীয় কারণে ১৯৪৫ সাল থেকে উৎপীড়িত জনগোষ্ঠী মতুয়ারা সমনাগরিকত্বের দাবিতে সরব হয়েছেন। আজ অপেক্ষার অবসান হল।’

মামাতাবালার বিরোধিতা

 

অপরদিকে, তৃণমূল নেত্রী মমতাবালা ঠাকুর পালটা সিএএ-র বিরুদ্ধে ধরনার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। তাঁর দাবি অনুযায়ী, “কি কি নথি লাগবে, সেটাই বলছে না। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর যা নথি আছে, আমাদেরও তাই আছে। তাহলে আমরা সবাই নাগরিক। কোনও শর্ত দিয়ে নাগরিকত্ব নেওয়ার পক্ষে আমরা নই। কোথা থেকে মানুষ নথি দেবে, কীভাবে জোগাড় করবে, কেউ জানে না। ভোটের রাজনীতি করছে বিজেপি। সঠিক ভাবে সব তথ্য জানাতে না পারলে আমরা ধরনায় বসব।”

সন্দেশখালিতেই থাকবেন শুভেন্দু, সেই মত বাড়ি ভাড়াও নিলেন

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর