Mamata comment controvercy

ব্যুরো নিউজ, ১০ এপ্রিল: ভূপতিনগরে এনআইএ আধিকারিকদের উপর হামলার ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত। উল্লেখ্য, এদিনের ঘটনার পর ধৃতের স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। উল্লেখ্য, বিস্ফোরণ কান্ডে যেখানে এনআইএ তদন্ত করতে ভূপতিনগরে গিয়েছিল, সেখানে গিয়ে এনআইএ আধিকারিকদের উপর হামলা হল তারপরেও ধৃতের স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে কীভাবে পুলিশ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করল সেই নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন বিচারপতি।
অবশ্য বুধবার এনআইএ-কে রক্ষাকবচ দিল হাইকোর্ট।

NIA সমন এড়াতে আদালতের কাছে ‘রক্ষাকবচ’ চাইলেন তৃণমূল নেতারা

Advertisement of Hill 2 Ocean

প্রশ্নের মুখে পুলিশের ভূমিকা

এদিন বিচারপতি বলেন, ‘কোনও প্রমাণ ছাড়া অফিসারের বিরুদ্ধে গুরুতর আহত করার ধারা কেন যুক্ত করলেন? কেস ডায়েরিতে আঁচড় বা গুরুতর আঘাতের কোনও উল্লেখ নেই। তাও কীভাবে ৩২৫ ধারা? কে তদন্ত করছিলেন? প্রাথমিক তদন্তের প্রয়োজন অনুভব করেছিলেন?’

পালটা রাজ্যের দাবি, কোনও মহিলা যদি এসে অভিযোগ করেন থানায়, তাহলে পুলিশ তা গ্রহণ করতে বাধ্য। অভিযুক্তের স্ত্রীর অভিযোগ নিয়ে কেন পুলিশ এত উদ্বিগ্ন, সে প্রশ্নও তোলেন বিচারপতি। এরপরেই বিচারপতি জয় সেনগুপ্তর নির্দেশ- ওই আধিকারিকদের এখনই গ্রেফতার করা যাবে না। কিন্তু ৭২ ঘন্টা আগে নোটিসের ভিত্তিতে ভিডিও কনফারেন্সে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে পুলিশ।

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর