Amit Shah on police raid
লাবনী চৌধুরী, ২০ এপ্রিল : কংগ্রেসকে ভোট দিলে তারা PFI নিষেধাজ্ঞা তুলে নেবে। আপনাদের কাছে দুটি বিকল্প আছে। এদিন PFI নিয়ে কংগ্রেসকে এক হাত নিলেন অমিত শাহ।
G-20 পরিচালনায় ভারতের নেওয়া উদ্যোগ বিশ্বের কাছে প্রশংসনীয়

রাজস্থানে জোরকদমে লোকসভা নির্বাচনী প্রচারে অমিত শাহ। আর এই লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস ক্ষমতায় এলে নানান বিপদের আশঙ্কা তিনি এদিনের জনসভা থেকে তুলে ধরেন। আর এদিনই তিনি পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া (পিএফআই) এর মতো নিষিদ্ধ সংগঠনগুলির পুনরুত্থানে বিপদের কথা উল্লেখ করে কংগ্রেসের বিজয়ের সম্ভাব্য পরিণতির বিরুদ্ধে সকলকে অবগত করেন।

শনিবার রাজস্থানের কোটায় বিজয় সংকল্প মহাসম্মেলনে শাহ বলেন, “আপনি যদি 2019 সালে কংগ্রেসকে ভোট দিতেন, কোটা PFI-এর বাড়িতে পরিণত হত। আপনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ভোট দিয়েছেন। আর তিনি পিএফআই-কে শেষ করেছেন। অপরাধীদের কারাগারে ঢুকিয়েছেন। আর এদিকে কংগ্রেস বলে যে তারা PFI এর উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেবে। কংগ্রেস একটি উন্নয়নবিরোধী দল বলে দাবি করেন শাহ।


তিনি এও বলেন যে, পিএফআইকে সন্ত্রাস-সম্পর্কিত কার্যকলাপের জন্য নিষিদ্ধ করার কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছিল কেরালায় কংগ্রেস এবং তার মিত্র ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ (আইইউএমএল)। কিন্তু একই সঙ্গে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) বিরুদ্ধেও একই ধরনের পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছিল তারা। এই আরএসএস হচ্ছে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির উৎস। 

শাহ চলমান লোকসভা নির্বাচনে ভোটারদের সাবধানে তাদের বিকল্প পথগুলি সম্পর্কে বিবেচনা করার কথা বলেছেন। শাহ বলেন "মানুষের সামনে দুটি বিকল্প রয়েছে। একদিকে নরেন্দ্র মোদী, যিনি নিবেদিতভাবে গত 23 বছর ধরে দেশকে সেবা করেছেন। আর অন্যদিকে রাহুল গান্ধী, যাকে অন্তত পক্ষে 20 বার নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য সামনে আনা হয়েছে, কিন্তু তিনি প্রতিবারই ব্যর্থ হয়েছেন।" 
শাহ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটকেও নিশানা করে বলেছেন যে, "তার ছেলে বৈভব গেহলটের নির্বাচনী প্রচারে নামলে অশোক গেহলটকে আটকানো হয়। অশোক গেহলটের ছেলে বৈভব বড় ব্যবধানে নির্বাচনে হারতে চলেছে।"

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর