ব্যুরো নিউজ, ৩ অক্টোবর: ঘরের মধ্যে বিলুপ্তপ্রায় খরগোশ

মূলত মাঠ-ঘাট, ঝোপ-জঙ্গলেই গর্ত করে বাসা বেঁধে থাকে জঙ্গলি খরগোশেরা। তবে একদিকে টানা বৃষ্টির জেরে ডুবেছে মাঠঘাট। অন্যদিকে জলাধারগুলো থেকে জল ছাড়ায় ডুবেছে আস্তানা টুকুও। 
বড়শুলের ‘দে’ বাড়ির চমক হরগৌরী রুপে মা দুর্গা
 

সোমবার সন্ধ্যায় বর্ধমান শহরের কাঞ্চননগর এলাকায় আচমকাই এক জঙ্গলি খরগোশ ঢুকে পড়ে স্থানীয় এক বাসিন্দার বাড়িতে। ঘরের মধ্যে হঠাৎ করেই জঙ্গলি খরগোশ দেখে মূলত অবাক হয়ে যান স্থানীয় সেই পরিবার।
গৃহস্থ কার্তিক দাস জানান, শিয়াল জাতীয় প্রাণীর তারা খেয়েই সম্ভবত খরগোশটি ভয়ে বাড়িতে ঢুকে পড়ে। এই প্রজাতির খরগোশ গত দশ বছরে এই এলাকায় নজরে আসেনি। শিয়াল ও অন্যান্য প্রাণীদের উৎপাতে ও চোরাশিকারিদের জন্য এই প্রজাতির খরগোশের সংখ্যা ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে।

 

ঘটনায় পশুপ্রেমী সংস্থার সদস্য দের খবর দেওয়া হয়। সেই সংস্থা থেকে রাতেই সদস্যরা এসে খরগোশ টিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। এই সংস্থার এক সদস্য জানান, উদ্ধার হওয়া খরগোশটি পুরুষ খরগোশ। বয়স আনুমানিক ৪০দিন। এই প্রজাতির খরগোশ বহু বছর এই এলাকায় দেখতে পাওয়া যায়নি। কিন্তু বহু বছর পর আবার এই এলাকায় জঙ্গলি খরগোশের দেখা পাওয়া পরিবেশের জন্য সুখবর। আমরা এই খরগোশটির পরিচর্যা করে উপযুক্ত বয়স হলেই এলাকায় ছেড়ে দেবো, যাতে খরগোশটি বংশ বিস্তার করতে পারে। ইভিএম নিউজ

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর