up-murder-case

পুস্পিতা বড়াল, ১ এপ্রিল: এক যুবক প্রথমে স্ত্রীকে তার পর দুই সন্তানকে খুন করে তিন দিন কাটালেন মৃতদেহগুলির সঙ্গেই। প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয় বন্ধ ঘর থেকে দুর্গন্ধ বার হতেই। পুলিশে তাঁরাই খবর দেন। পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে খবর পেয়ে। পুলিশ সূত্রে খবর,সেই সঙ্গে অভিযুক্তকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

অভিযুক্তকেও গ্রেফতার করা হয়েছে

Advertisement of Hill 2 Ocean

নির্বাচন কমিশনের ক্ষোভের মুখে দিলীপ ঘোষ

উত্তরপ্রদেশের লখনউতে ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রাম লগন নামে বছর ৩২-এর এক যুবক বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের সন্দেহে স্ত্রীর সঙ্গে প্রায়ই ঝামেলা করতেন। এই একই কারণে দু’জনের মধ্যে অশান্তিও চলছিল গত কয়েকদিন ধরে। এরপর আচমকা রাম তাঁর স্ত্রীর গলায় ওড়না পেঁচিয়ে খুন করেন ঝগড়ার মাঝেই।

রাম পুলিশি জেরার মুখে স্বীকার করে নিয়েছেন স্ত্রীকে খুন করার কথা। তিনি কেন এমন কাণ্ড করলেন তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে পুলিশকে তিনি জানান, প্রায়ই ফোনে কারও সঙ্গে কথা বলতেন তাঁর স্ত্রী জ্যোতি। ফোন কেটে দিতেন তিনি এলেই। কথা বলছেন কার সঙ্গে, জানতে চাইলে এড়িয়ে যেতেন উত্তর। রামের তাতে সন্দেহ হয়। এই নিয়ে প্রায়ই অশান্তি হত।

পুলিশ সূত্রে খবর, শুধু স্ত্রীকে নয়, রাম তাঁর দুই সন্তানকেও খুন করেছেন। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, তিনি ভাড়া বাড়িতে থাকতেন দুই সন্তান এবং স্ত্রীকে নিয়ে। রাম এবং জ্যোতির মধ্যে ঝগড়া হত প্রায় প্রতি দিন রাতেই। রবিবার দুর্গন্ধ বার হতে থাকে তাঁর ঘরের পাশ থেকে। এরপরই খবর দেওয়া হয় পুলিশকে।

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর