Congress candidate list

ব্যুরো নিউজ, ২৯ মার্চ: আয়কর বিভাগের কর পুনর্মূল্যায়ন প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে আবেদন করেছিল কংগ্রেস। কিন্তু, গত বৃহস্পতিবারই কংগ্রেসের আবেদন খারিজ করে দেয় দিল্লি হাইকোর্ট। কিন্তু এখানেই শেষ নয়। এরপরই কংগ্রেসকে নোটিস দিল আয়কর বিভাগ। সেই নোটিশই কার্যত মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার সমান।

আদর্শ আচরণবিধি লাগু হওয়ার পরও রাজ্য সরকারি প্রকল্পের পোস্টার ঘিরে বিতর্ক

Advertisement of Hill 2 Ocean

কংগ্রেস নেতা বিবেক তানখা আয়কর বিভাগের এই নোটিস সম্পর্কে জানিয়েছেন যে, ২০১৭-১৮ থেকে ২০২০-২১ – এই বছরগুলিতে কংগ্রেসের আয়কর সমীক্ষা করে আয়কর বিভাগ জানিয়েছে, জরিমানা এবং সুদ-সহ কংগ্রেসকে ১৭০০ কোটি টাকা দিতে হবে।

দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরের বাইরে বিক্ষোভ কর্মসূচী ইন্ডিয়া জোটের

প্রসঙ্গত, জাতীয় কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তদন্ত করছে আয়কর দফতর। এর আগে বকেয়া করের হিসেবে কংগ্রেসকে ১০৫ কোটি টাকা দেওয়ার নোটিস দিয়েছিল আয়কর। তবে সেই নোটিশে স্থগিতাদেশ চেয়ে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন জানায় কংগ্রেস। কিন্তু কংগ্রেসের সেই আবেদন খারিজভয়ে যায় আদালতে। বিচারপতিদের মত ছিল, ইনকাম ট্যাক্স আপিল ট্রাইব্যুনালের নির্দেশে হস্তক্ষেপ করার প্রয়োজন আছে বলে তারা মনে করছেন না। কিন্তু তারপরেও আদালত এই আদেশ স্থগিত করার জন্য আপিল ট্রাইব্যুনালে নতুন করে আবেদন করার অনুমতি দিয়েছিল কংগ্রেসকে।

এদিকে ২০১৭-১৮ থেকে ২০২০-২১ এই তিন বছরগুলিতে কংগ্রেসের আয়কর সমীক্ষা করে আয়কর বিভাগ জানিয়েছে, জরিমানা ও সুদ-সহ কংগ্রেসকে ১৭০০ কোটি টাকা দিতে হবে।

তবে এই বিষয়ে কংগ্রেস সাংসদ তথা আইনজীবী বিবেক টাঙ্কা বলেন, কংগ্রেসকে বিপাকে ফেলার জন্যই এই ধরনের নোটিশ। আয়কর বিভাগের এই নোটিশে কোনও ধরণেরই কোনও কাগজপত্র দেওয়া হয়নি। তবে এবিষয়ে আয়কর বিভাগের দাবি, ওই বছরগুলিতে নির্বাচনী বন্ড বা অন্যান্য খাত থেকে কংগ্রেসের যে আয় হয়েছে তার কর ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। সেই টাকারই নোটিশ দেওয়া হয়েছে কংগ্রেসকে। পাশাপাশি জরিমানাও ধার্য করা হয়েছে।

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর