বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

Tathagata Roy on tmc

রাজ্যপালের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ, ‘রাজ্যপালের বিরুদ্ধে কোনও ফৌজদারি মামলা করা যায় না’ জানালেন প্রাক্তন রাজ্যপাল তথাগত রায়

ব্যুরো নিউজ, ৩ মে : রাজ্যপালের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ, ‘রাজ্যপালের বিরুদ্ধে কোনও ফৌজদারি মামলা করা যায় না’। কারন জানালেন মেঘালয়ের প্রাক্তন রাজ্যপাল তথাগত রায়। ঠিক কী বললেন তিনি? রাজভবন থেকে মোদী বেরনোর পর পরেই রাজ্য ছাড়লেন বোস! রাজ্যপালকে নিয়ে বিতর্কের মাঝেই বড় সিদ্ধান্ত গতকালই রাজ্যপালের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ ওঠে। রাজভবনের এক মহিলা অস্থায়ী কর্মী এই অভিযোগ তোলেন। ঘটনায় হেয়ার স্ট্রিট থানায় দায়ের করা হয় অভিযোগ। আর তা নিয়েই তুঙ্গে ওঠে রাজ্য- রাজনীতি। রাজ্যপালের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে সরব হন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। আর তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপও নেওয়া হয়। রাজভবনে রাজ্যের অর্থ প্রতিমন্ত্রীর প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়। জানানো হয়েছে, কোনও অনুষ্ঠানে রাজভবনের তরফে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে আমন্ত্রণ জানানো হবে না। এদিকে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলায় তুঙ্গে উঠেছে রাজ্য- রাজনীতি। আর তা নিয়ে সরব হন মেঘালয়ের প্রাক্তন রাজ্যপাল তথাগত রায়। তিনি রাজ্যপাল বোসের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, রাজ্যপালের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ বিশ্বাসযোগ্য নয়। এই অভিযোগ অবশ্যই প্রমান করতে হবে। তা না হলে অভিযোগকারি আইনি সমস্যায় পড়বেন। একই সঙে তিনি বলেন, রাজ্যপালের বিরুদ্ধে কোনও ফৌজদারি মামলা করা যায় না। এমনকি রাষ্ট্রপতির বিরুদ্ধেও তা প্রযোজ্য। রাজ্যপালের বিরুদ্ধে  দেওয়ানি মামলা করতে হলে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়। একই সঙে তিনি অভিযোগকারি ওই মহিলার বিরুদ্ধে বলেন, এবার ওই মহিলাকে তার আনা সেই অভিযোগ প্রমান করতে হবে। এবং ওই মহিলার বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ২১১ সেকশন অনুযায়ী মামলা রুজু করার কোথাও বলেন। একই সঙে তথাগত রায় বলেন, নিজের ইজ্জত খোয়ানোর কথা বলা কোনও মহিলার পক্ষেই কঠিন। কিন্তু টাকার বিনিময়ে অনেক কিছুই হয়। আর তার এই বক্তব্যে যথেষ্ট ইঙ্গিতপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তথাগত রায় একজন ভারতীয় রাজনীতিবিদ। তিনি ২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ত্রিপুরার গভর্নর ছিলেন। এবং ২০১৮-এর আগস্ট থেকে ২০২০-এর আগস্টে তার মেয়াদ শেষ হওয়া পর্যন্ত মেঘালয়ের গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

আরো পড়ুন »
kolkata-metro

শেষ মেট্রো ছাড়ার সময় বিবেচনা করার নির্দেশ দিল হাইকোর্ট, তবে বদলাবে সময়সূচী? 

ব্যুরো নিউজ, ৩ মে: শেষ মেট্রো ছাড়ার সময় বিবেচনা করার নির্দেশ দিল হাইকোর্ট, তবে বদলাবে সময়সূচী? এবার আমেঠি নয়, রায়বরেলি থেকে নির্বাচনের লড়বেন রাহুল গান্ধী শেষ মেট্রো ছাড়ার সময় বাড়ানোর বিষয়ে বিবেচনা করার নির্দেশ দিল হাইকোর্ট। শেষ মেট্রোর সময় বৃদ্ধির আবেদনে জারি করা হয় জনস্বার্থ মামলা। সেই মামলার শুনানিতে এমনই পর্যবেক্ষণ কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানম এবং বিচারপতি হিরণ্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চের। দাবি করা হয়েছে, কলকাতা সংলগ্ন জেলাগুলি থেকে বহু মানুষ কলকাতায় আসেন কাজ বা ব্যবসার সূত্রে। অনেকেই সকালে আসেন এবার রাতে ফিরে যান। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায়, মেট্রো তাড়াতাড়ি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাদের গন্তব্যে বা বাড়ি ফিরতে বুহু কাঠখড় পোরাতে হয়, মেট্রো না মেলায় বিকল্প সড়ক পথেই ভরসা রাখতে হয়। এদিকে শহরের রাস্তা ঘাটে ট্রাফিক- জ্যাম লেগেই থাকে। তাই তাদের ফিরতেও অনেকটাই দেরি বা বিলম্ব হয়ে থাকে। অনেকের আবার সড়ক পথে বাসের ওপর ভরসা করেই পৌঁছতে হয় হাওড়া কিংবা শিয়ালদহ স্টেশনে। সেখান থেকে ট্রেন ধরে নিজের বাড়ির পথে রওনা। কিন্তু বহু ক্ষেত্রে যানজটে আটকে যাওয়ায় বাড়ি ফেরার লাস্ট ট্রেনও মিস হয়ে যায়। তখন কপালে চরম দুর্ভোগ সেই যাত্রীদের। কিন্তু যদি সেই সময় মেট্রো রেল চালু থাকে, তবে মেট্রো করেই বিনা ঝঞ্ঝাটে সফর করা যায়। সে কথা ভেবেই শেষ মেট্রোর সময় বাড়ানো যায় কি না তা বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে বলা হয় মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষকে। কলকাতা মেট্রোয় রাত ৯ টা ৪০ মিনিটে শেষ মেট্রো ছাড়ে। এতো তাড়াতাড়ি মেট্রো বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে অনেক যাত্রীরই ফিরতে অসুবিধা হয়। সেক্ষেত্রে শেষ মেট্রোর সময় অন্তত ৪৫ মিনিট পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি জানালে কলকাতা হাইকোর্ট শেষ মেট্রোর সময় বাড়ানো নিয়ে বিবেচনা করতে বলে মেট্রো কর্তৃপক্ষকে। আর চিন্তা – ভাবনার পর এ বিষয়ে মেট্রো কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত চার সপ্তাহের মধ্যে মামলাকারীকে জানানোর নির্দেশ দেয় আদালত। গত বৃহস্পতিবার এমটাই জানায় হাইকোর্ট। কিন্তু এবার শেষ মেট্রো ছাড়ার সময় বাড়ানো হবে কি না? বা শেষ মেট্রো ছাড়ার সময়সূচী বদলাবে কি না তা জানা যাবে চার সপ্তাহ পরেই।

আরো পড়ুন »
Chandrima Bhattacharya issue

রাজভবনে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

ব্যুরো নিউজ, ৩ মে: রাজভবনে প্রবেশের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের ওপর। শুধু তাই নয় নির্বাচন চলাকালীন পুলিশের প্রবেশের ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। রাজভবনের তরফে এক বিবৃতি প্রকাশ করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। রাজভবন থেকে মোদী বেরনোর পর পরেই রাজ্য ছাড়লেন বোস! রাজ্যপালকে নিয়ে বিতর্কের মাঝেই বড় সিদ্ধান্ত ‘ছদ্মবেশী’ পুলিশদের রাজভবনে ঢোকার ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা! উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজভবনের এক অস্থায়ী মহিলা কর্মচারী শ্নীলতাহানীর অভিযোগ তোলেন। সেই অভিযোগ তোলেন খোদ রাজ্যপালের বিরুদ্ধে। তার অভিযোগকে কেন্দ্র করে চোর গোল পড়ে যায়। ওই মহিলার অভিযোগ রাজ্যপাল নাকি তাকে দুবার শ্লীলতাহানি করেছেন। ওই মহিলা প্রথমে রাজভবনে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশকে তার অভিযোগ জানায়। পরে হেয়ার স্ট্রিট থানায় রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধানের বিরুদ্ধে ওই মহিলা অভিযোগ দায়ের করেন। এরপরই মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এই ঘটনা নিন্দা করে বলেন, ‘নারী নির্যাতনের অভিযোগ উঠছে রাজ্যপালের বিরুদ্ধে। তাঁর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগপত্র জমা দিতে গিয়েছেন এক মহিলা। এ কী ধরনের ঘটনা ঘটছে? যে রাজ্যপাল বলেন পিসরুম করছেন। সকলের অভিযোগ শুনবেন। অভিযোগের নিষ্পত্তি করবেন। পিসরুম কি আসলে নারী সম্মানের পিস হাভেন হয়ে গিয়েছে? যেখানে বারবার প্রধানমন্ত্রী নারীশক্তির কথা বলছেন সেখানে রাজ্যপাল নারীর অপমান, অসম্মান করছেন? ছিঃ!’ চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের এই মন্তব্যের পরেই রাজভবনের তরফে বিবৃতি জারি করে বলা হয়, ‘রাজ্যপালের সম্মানহানি এবং তাঁর বিরুদ্ধে অসাংবিধানিক বিবৃতি দেওয়ার জন্য চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে। কলকাতা, দার্জিলিং এবং ব্যারাকপুরের রাজভবনে তিনি ঢুকতে পারবেন না। চন্দ্রিমা কোনও অনুষ্ঠানে থাকলে সেখানেও যাবেন না রাজ্যপাল।’ এর পাশাপাশি চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা কী নেওয়া উচিত তা অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে জানতে চেয়েছেন রাজ্যপাল। এর পাশাপাশি ভোট চলাকালীন ছদ্মবেশী পুলিশদের রাজভবনে ঢোকার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। সব মিলিয়ে ভোটের বাজারে ফের আরো একবার রাজ্য-রাজভবন সংঘাত প্রকাশ্যে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

আরো পড়ুন »
C V Ananda Bose FILED A CASE

রাজভবন থেকে মোদী বেরনোর পর পরেই রাজ্য ছাড়লেন বোস! রাজ্যপালকে নিয়ে বিতর্কের মাঝেই বড় সিদ্ধান্ত

ব্যুরো নিউজ, ৩ মে:  রাজভবন থেকে মোদী বেরনোর পর পরেই রাজ্য ছাড়লেন বোস! রাজ্যপালকে নিয়ে বিতর্কের মাঝেই বড় সিদ্ধান্ত। ভোট ব্যাঙ্কের খাতিরে ধর্মের ভিত্তিতে সংরক্ষণ দিচ্ছে কংগ্রেস! বিস্ফোরক মোদী! গতকালই রাজ্যপালের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ ওঠে। রাজভবনের এক মহিলা অস্থায়ী কর্মী এই অভিযোগ তোলেন। ঘটনায় হেয়ার স্ট্রিট থানায় দায়ের করা হয় অভিযোগ। আর তা নিয়েই তুঙ্গে ওঠে রাজ্য- রাজনীতি। রাজ্যপালের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে সরব হন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। আর তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছে। রাজভবনে রাজ্যের অর্থ প্রতিমন্ত্রীর প্রবেশ নিষিদ্ধ  করা হয়। জানানো হয়েছে, কোনও অনুষ্ঠানে রাজভবনের তরফে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে আমন্ত্রণ জানানো হবে না। এদিকে গতকালই রাজ্যে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী। এই নিয়ে বাংলায় তার অষ্টম দফায় ভোট প্রচার। গতকাল রাতে কলকাতায় আসেন প্রধানমন্ত্রী। রাতে রাজভবনেই থাকেন। কারন আজ মোদীর তিন জায়গায় জনসভা। আজ প্রথমে বর্ধমান-দুর্গাপুর কেন্দ্রের দক্ষিণ বর্ধমান সাই কমপ্লেক্স মাঠে সভা   মোদীর। সেখানে বর্ধমান-দুর্গাপুরের প্রার্থী দিলীপ ঘোষের পাশাপাশি প্রার্থী অসীম সরকারের হয়ে প্রচার করেন তিনি। এরপর নদিয়ার কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী অমৃতা রায়ের সমর্থনে তেহট্টে প্রচার। আর তারপরেই বীরভূমে বোলপুরের প্রার্থী পিয়া সাহার সমর্থনে সভা। সেই মত সকাল ১০টা বেজে ১২ মিনিট নাগাদ তিনি রাজভবন থেকে বর্ধমানের উদ্দেশে বের হন। আর ঠিক তার খানিক পরেই ১০টা ৩৫ নাগাদ রাজভবন থেকে বের হতে দেখা যায় রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোসকে। আর তা নিয়েই ফের তৈরি হয় জল্পনা। রাজ্যপালকে নিয়ে যে সময়ে বড় বিতর্ক তৈরি হয়েছে। ঠিক সে সময়েই হঠাৎ কেন শহর ছাড়লেন তিনি। এ প্রশ্ন তুলেই তুঙ্গে ওঠে চর্চা। কিন্তু রাজভবন সূত্রে জানা গিয়েছে, তিনি কোচি সফরে  গিয়েছেন। আর তার এই সফর পূর্ব নির্ধারিত ছিল বলেই জানা গিয়েছে।

আরো পড়ুন »
bjp tmc

মানিকতলায় আক্রান্ত বিজেপি কর্মী, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ

ব্যুরো নিউজ, ৩ মে : কসবার আনন্দপুরে বিজেপির মণ্ডল সভাপতি সরস্বতী সরকারের পর এবার আক্রান্ত মানিকতলার বিজেপি কর্মী। তাকে বেশ কয়েকবার ছুরির কোপ মারা হয়। অভিযোগের তীর তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে গোটা এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। কুণাল ঘোষের গলায় অন্য সুর, জল্পনা রাজনৈতিক মহলে নারকেলডাঙায় কংগ্রেস নেতাকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বাড়ি থেকে বেরোনোর পরেই তার ওপর হামলা হয় বলে অভিযোগ। ৬-৭ জন দুষ্কৃতী আচমকা তার ওপর এসে হামলা করে, বেশ কয়েকবার ছুরি দিয়ে আঘাত করে বলেও খবর। এরপর তাকে জলে ফেলে দেয়। ওই বিজেপি কর্মীর পা ভেঙে যায়। গুরুতর জখম অবস্থায় ওই বিজেপি কর্মীকে সেখান থেকে তুলে এনআরএস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যদিকে, নারকেলডাঙায় কংগ্রেস নেতাকে ধাওয়া করে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ভোরে নামাজ পড়ে ফেরার পথে কংগ্রেস নেতা ইমামুদ্দিনের ওপর দুষ্কৃতীরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ। মহম্মদ আশরফ ওরফে চুন্নুকেই এই ঘটনার জন্য দায়ী করছেন মৃত কংগ্রেস নেতার পরিবার। কারণ এই চুন্নু এর আগেও মৃত কংগ্রেস নেতা ইমামুদ্দিনকে হুমকি দিয়েছিল বলে পরিবারের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, সপ্তম দফায় নির্বাচন রয়েছে উত্তর কলকাতার লোকসভা কেন্দ্রে। তার আগেই আক্রান্ত হলেন বিজেপি কর্মী। কুপিয়ে খুন করা হলো কংগ্রেস নেতাকে। স্বাভাবিকভাবেই এই ধরনের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পাশাপাশি প্রশ্নের মুখে প্রশাসনিক ব্যবস্থাও। ইতিমধ্যে কংগ্রেসের তরফে নির্বাচন কমিশনে নালিশ জানানো হয়েছে। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

আরো পড়ুন »
Keep the water tank cool

ট্যাঙ্কের জল অত্যাধিক গরম হয়ে যাচ্ছে? দেখে নিন কীভাবে জল ঠান্ডা রাখবেন

ব্যুরো নিউজ, ২ মে : আপনার বাড়ির ছাদে জলের ট্যাঙ্ক আছে? কল খুললেই গরম জল পড়ছে? দিন দিন যেভাবে তাপমাত্রার পারদ চড়ছে, তাতে খুব তাড়াতাড়ি ছাদে থাকা ট্যাঙ্কের জল গরম হয়ে যাচ্ছে। ফলে গরমের মধ্যে সেই জল ব্যবহার করতে গেলে ছ্যাঁকা লাগার জোগাড়। তবে বেশ কয়েকটি টিপস ফলো করলে কিন্তু যতই গরম পড়ুক না কেন, ট্যাঙ্কের জল কিন্তু থাকবে ঠান্ডা। ভাবছেন তো কীভাবে সম্ভব? সম্ভব। কিন্তু তারজন্য ছোট্ট কয়েকটি কাজ করতে হবে। ঘুরে আসি : নিরিবিলিতে সময় কাটাতে চাইলে চলে যান মানসাং-এ কয়েকটি পদ্ধতি অবলম্বন করলেই হাতে না হাতে ফল মিলবে সূর্যের আলো সরাসরি ট্যাঙ্কের জল গরম করে। তাই সূর্যের আলো যাতে সরাসরি ট‍্যাঙ্কের গায়ে না লাগে সেই ব‍্যবস্থা করুন। একটি মোটা কাপড় বা ট‍্যাঙ্ক কভার কিনে ট্যাঙ্ক ঢেকে দিন। এটি সূর্যালোককে আটকাবে এবং দীর্ঘ সময়ের জন্য জলকে ঠান্ডা রাখবে। ট্যাঙ্কের বাইরের দিকে চুন বা মাটির একটি স্তর প্রয়োগ করুন। ট‍্যাঙ্কের গায়ের এই আবরন লাগিয়ে দিন। এই প্রলেপ সরাসরি সূর্যালোক আসতে দেয় না। ফলে জলকে অনেকক্ষণ ঠান্ডা রাখে। মাটির কলসির জল ঠান্ডা রাখে। ট‍্যাঙ্কের গায়ে মাটি লাগানো থাকলে জলকে খানিকটা ঠান্ডা রাখবে। আমরা জানি গ্রামাঞ্চলে যে বাড়িতে ফ্রিজের ব্যবস্থা নেই, সেখানে কিন্তু মাটির কলসিতে পানীয় জল রাখা থাকে। কারণ মাটির কলসির জল ঠান্ডা থাকে। গরমে সাদা রঙের পোশাক আরামদায়ক। কারণ সাদা রং সূর্যের রশ্মি শোষণ করে না। ঠিক একই উপায়ে ঠান্ডা রাখা যেতে পারে জলও। ট‍্যাঙ্কের গায়ে সাদা রং করে দিন। সাদা রং করা থাকলে সরাসরি সূর্যরশ্মি ট‍্যাঙ্কে প্রবেশ করতে পারবে না। ফলে সাদা রঙের কারণে তাপও অনেকটাই কম হবে। জলের ট্যাঙ্কে ঘরের ছাউনি দিয়ে রাখলে ট্যাঙ্কের জল ঠান্ডা থাকবে। গরমের দিনে ট্যাঙ্কের জল ঠান্ডা রাখতে এই পদ্ধতি অবলম্বন করতে পারেন।

আরো পড়ুন »
dead-body-pic

ব্রিগেডে মহিলার পচাগলা দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য

ব্যুরো নিউজ, ১ মে, শর্মিলা চন্দ্র: প্রাতঃভ্রমণে গিয়ে মহিলার পচা গলা দেহ দেখে আতঙ্কিত প্রাতঃভ্রমণকারীরা। রোজকার মতই ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে প্রাতঃভ্রমণে গিয়েছিলেন অনেকেই। তখনই তারা প্রথমে পচা গন্ধ পান। এরপরই দেখতে পান কিছু একটা পড়ে রয়েছে। সামনে গিয়ে দেখেন এক মহিলার পচা গলা দেহ সেখানে পড়ে রয়েছে। তারাই পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠায়। গোটা ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মহিলার মৃত্যুর কারণ ঘিরে বাড়ছে রহস্য ! পুলিশের প্রাথমিক অনুমান খুন করা হয়েছে। তবে ওইখানে খুন করা হয়েছে নাকি অন্যত্র খুন করে ওখানে ফেলে রেখে গেছে তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত মহিলা বয়স আনুমানিক ৩২। পেশার যৌনকর্মী অথবা ভিক্ষুক হতে পারেন৷ মৃত মহিলার পরিচয় জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। ওই মহিলা কিভাবে খুন হলেন, কে বা কারা তাকে খুন করলো তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে ময়দান থানার পুলিশ ও লালবাজারের গুন্ডা দমন শাখা  

আরো পড়ুন »
income-tax-photo

চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলো আয়কর দপ্তর! দিতে হবে না পরীক্ষা, ইন্টারভিউ দিলেই চাকরি

ব্যুরো নিউজ, ১ মে: নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলো আয়কর বিভাগ। সম্প্রতি আয়কর দপ্তর একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর পদে নিয়োগের কথা জানিয়েছে। আপনি কি পাবলিক প্রসিকিউটর পদে আবেদন করতে চান? তাহলে আর দেরি কেনো? সুযোগ দিচ্ছে আয়কর দপ্তর। তবে এক্ষেত্রে অফলাইনে আবেদন করতে হবে চাকুরী প্রার্থীদের। পুরুষ, মহিলা উভয়েই এই পদে আবেদনের যোগ্য। বিস্তারিত জানতে পড়ুন এই প্রতিবেদন। নোটিশ নম্বর:- Pr. CCIT/MP/Tech/Special Public Prosecutors (SPPs)/2024-25 কবে নোটিশ প্রকাশ হয়েছে – ০৯/০৪/২০২৪। শূন্যপদের নাম:- স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর (SPP) শূন্যপদের সংখ্যা:- এক্ষেত্রে শূন্যপদ মাত্র ১টি। প্রয়োজনীয় যোগ্যতা:- আবেদনকারী প্রার্থীকে অবশ্যই অ্যাডভোকেট হতে হবে। সেক্ষেত্রে নূন্যতম ৭ বছর চাকরির অভিজ্ঞতা বাঞ্ছনীয়। নিয়োগ প্রক্রিয়া:- ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে এই নিয়োগ করা হবে। নিয়োগ স্থান:- ভোপালের আয়কর দফতর। কিভাবে আবেদন করবেন ? 1) অফলাইনে আবেদন করতে হবে প্রার্থীকে। 2) প্রথমে www.incometaxindia.gov.in ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আবেদন পত্রটি ডাউনলোড করুন। 3) তারপর আবেদন পত্রটি প্রিন্ট করিয়ে নিন। 4) ভালো করে ওই আবেদনপত্র ফিলাপ করুন। 5)সব প্রয়োজনীয় সমস্ত প্রয়োজনীয় নথিপত্র যেমন পরিচয়পত্র, বার্থ সার্টিফিকেট, শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট, জাতিগত শংসাপত্রের ফটোকপি, দুই কপি কালার পাসপোর্ট সাইজ ছবি। 6) সব নথি আবেদন পত্রের সঙ্গে যুক্ত করে খামে ভরে নির্দিষ্ট ঠিকানায় প্রেরণ করুন। কোন ঠিকানায় আবেদন পত্র পাঠাবেন:-O/o the Pr. Chief Commissioner of Income Tax, MP & CG, Bhopal বি দ্রঃ- ১০/০৫/২০২৪ তারিখ বিকেল ৫ টার মধ্যে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে

আরো পড়ুন »
sago-seed-image

বারবার নকল সাবুদানা কিনে ঠকছেন? জেনে নিন অরিজিনাল সাবুদানা চেনার উপায় !

ব্যুরো নিউজ, ৩০ এপ্রিল, পুস্পিতা বড়াল: বারবার নকল সাবুদানা কিনছেন? খেয়েও যেনো শান্তি পাচ্ছেন না! আজকে আপনাদের জানাবো কীভাবে আসল সাবুদানা এবং নকল সাবুদানা চিনবেন? প্রথমেই বলবো অরিজিনাল সাবুদানা দেখতে কেমন হবে। অরিজিনাল সাবুদানা হবে জলের মতো স্বচ্ছ কাচের টুকরোর মত। প্রথম দেখায় প্লাস্টিকের দানাও ভেবে ফেলতে পারেন অনেকেই (ভয় নেই এটাই অরিজিনাল সাবুদানার প্রধান বৈশিষ্ট্য ) কীভাবে চিনবেন অরিজিনাল সাবুদানা ? এরপর ১টা বাটিতে কিছুটা জল নিয়ে এতে সাবুদানা দিয়ে দিন। মিনিট খানিক অপেক্ষা করুন বা চামচ দিয়ে নেড়ে নিন। দেখবেন জল স্বচ্ছ আছে কিনা। জল যদি দুধের মতো সাদা হতে শুরু করে তাহলে অবশ্যই এটা নকল বা আটার সাবুদানা। এবার আসি রান্নার পর্যায়ে। গ্যাসে হাড়িতে জল এবং সাবুদানা (অবশ্যই ধুয়ে নিবেন) দিয়ে দিন। হালকা করে নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না ফুটে উঠছে। এরপর জল বা দুধ পর্যাপ্ত পরিমাণে দেবেন এবং দানাগুলো পরিপূর্ণ সিদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত রান্না করতে থাকবেন। রান্না হয়ে গেলে সাবুর দানাগুলো ট্রান্সপারেন্ট হয়ে যাবে। তখনই বুঝতে পারবেন যে এটাই আসল সাবুদানা। এরপর হালকা চাপ দিয়ে দেখবেন নরম হয়েছে কিনা। মনে রাখবেন খাবার ভালো ভাবে রান্না করবেন নয়তো হজম ভালো হবেনা। সাবুদানার উপকারিতা : ১) সাবুদানাতে প্রচুর পরিমাণে ট্যানিন ও ফ্লেভানয়েড নামে দুটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকার ফলে ফ্রি রেডিক্যালগুলো নষ্ট করে আমাদের ক্যান্সারের মতো মারণব্যাধি থেকে রক্ষা করে। ২) সাবুদানাতে থাকা ক্যালসিয়াম হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে। এ ছাড়াও অস্টিওপোরোসিসের মতো সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা কমিয়ে দেয়। ৩) সাবুদানায় প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম রয়েছে যা উচ্চ রক্তচাপ হ্রাস করে। এতে করে হৃদরোগজনিত সমস্যা কম হয়

আরো পড়ুন »
audi-q7

মধ্যবিত্তের উপর চাপ বাড়িয়ে জুন থেকে চার চাকার দাম বাড়াল Audi! কত হল দাম?

ব্যুরো নিউজ, ৩০ এপ্রিল: অডি ঘোষণা করেছে যে, এটি ক্রমবর্ধমান ইনপুট এবং পরিবহন খরচের কারণে মডেল পরিসর জুড়ে তার গাড়ির দাম দুই শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি করবে। মূল্য বৃদ্ধি কার্যকর হবে 1 জুন থেকে। অডি ইন্ডিয়া মোট 7,027 ইউনিট বিক্রি করেছে। এইভাবে FY23-24-এ সামগ্রিকভাবে 33 শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। একইসঙ্গে, অডি অ্যাপ্রুভড: প্লাস, প্রাক-মালিকানাধীন গাড়ি ব্যবসা, একই সময়ে 50 শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। মূল্য বৃদ্ধি কার্যকর হবে 1 জুন থেকে !! অডি ইন্ডিয়ার বর্তমান মডেল পরিসরের মধ্যে রয়েছে A4, A6, A8 L, Q3, Q3 Sportback, Q5, Q7, Q8, S5 Sportback, RS5 Sportback, RS Q8, Q8 50 e-tron, Q8 55 e-tron, Q8 Sportback 50 e -ট্রন, কিউ 8 স্পোর্টব্যাক 55 ই-ট্রন, ই-ট্রন জিটি এবং অডি আরএস ই-ট্রন জিটি। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে গিয়ে, অডি ইন্ডিয়ার হেড বলবীর সিং ধিলোন বলেন, “ক্রমবর্ধমান ইনপুট খরচ আমাদেরকে 1 জুন থেকে দুই শতাংশ পর্যন্ত দাম বাড়াতে বাধ্য করছে। বরাবরের মতো আমাদের প্রচেষ্টা থাকবে, যতটা সম্ভব ক্রমবর্ধমান খরচের প্রভাব যাতে আমাদের গ্রাহকদের জন্য কম হয়।

আরো পড়ুন »

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

ঠিকানা