bishnupur-mp-soumitra-khan

ব্যুরো নিউজ, ৩ মার্চ: ভারতে ১৮ তম লোকসভা গঠন হতে চলেছে। সারা ভারত জুড়ে ৫৪৩ টি আসনের মধ্যে পশ্চিমবাংলায় রয়েছে ৪২ টি আসন। এরমধ্যে অন্যতম বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্র।

৩৭ নম্বর বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত সাতটি বিধানসভা কেন্দ্র ছয়টি বাঁকুড়া জেলায় এবং একটি বর্ধমান জেলায় অবস্থিত। সাতটি বিধানসভা কেন্দ্র হল- বড়জোড়া, ওন্দা, বিষ্ণুপুর, কোতুলপুর, ইন্দাস, সোনামুখী, খন্ডঘোষ। এই লোকসভা কেন্দ্রটি তপশিলি জাতি তালিকাভুক্ত প্রার্থীদের জন্য সংরক্ষিত। বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রে মোট ভোটদাতা ১২ লক্ষ ৩৭ হাজার ৯৪৮জন।

আইনি লড়াই থেকে রাজনীতির ‘রণযুদ্ধে’ সুষমা স্বরাজের মেয়ে বাঁসুরি
২০১৯-এ এই কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী ছিলেন সৌমিত্র খাঁ, তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে ছিলেন শ্যামল সাঁতরা। সিপিআইএম-এর থেকে ছিলেন সুনীল খাঁ। ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল কংগ্রেসের থেকে  নারায়ণ চন্দ্র খাঁ প্রার্থী হয়েছিলেন। সেবারের প্রতিদ্বন্দিতা সেই লোকসভা কেন্দ্র জিতে নেয় বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ। সৌমিত্র খাঁ ভোট পেয়েছিলেন ৬ লক্ষ ৫৭ হাজার ০১৯টি। এদিকে শ্যামল সাঁতরা ভোট পেয়েছিলেন ৫ লক্ষ ৭৮ হাজার ৯৭২টি। খান সুনীল পেয়েছিলেন ১ লক্ষ ২ হাজার ৬১৫টি ভোট। আর নারায়ণ চন্দ্র খাঁ ভোট পেয়েছিলেন ১ লক্ষ ৭ হাজার ৯৩২টি।

সৌমিত্র খাঁ ৮ ডিসেম্বর ১৯৮০ সালে পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া জেলার দুর্লভপুরে জন্মগ্রহণ করেন এই বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ মুন্ডি জাতি হিন্দু পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা ধনঞ্জয় খাঁ এবং মা ছায়ারানী খাঁ। কংগ্রেসের হাত ধরেই রাজনীতিতে হাতে খড়ি হয় তার। কংগ্রেসের টিকিটেই তিনি বিধায়ক হয়েছিলেন।

Advertisement of Hill 2 Ocean

এরপর ২০১৩ তে কংগ্রেস ছেড়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। ২০১৪ সালে বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ হন তিনি। ২০১৪ পর্যন্ত এখানে কমিউনিস্ট পার্টির গড় ছিল। তবে সৌমিত্র খাঁর হাত ধরেই সেই গড় ধ্বংস হয়। এরপর ২০১৯-এ বিজেপির হাত ধরে এমপি টিকিট পান এবং তাতে জয়লাভও করেন।

এবার এক নজরে জেনে নেওয়া যাক সাংসদ সৌমিত্র খাঁ ১ জুন ২০১৯ থেকে ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ পর্যন্ত অর্থাৎ গত পাঁচ বছরে সংসদে তার কর্ম ক্ষমতা কতটা ছিল:
সংসদে ৫ বছরের উপস্থিতির হার ৭৪ শতাংশ।
সংসদে পাঁচ বছরে বিতর্কে অংশগ্রহণ করেন ২৭ বার।
সংসদে পাঁচ বছরে প্রশ্ন করেছিলেন ১২০ টি।

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর