PM Biswakarma Yojana)

এই প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করলেই গ‍্যারান্টি ছাড়া লক্ষ টাকার লোন দিচ্ছে কেন্দ্র,হয়ে যাবেন মালামাল

ব্যুরো নিউজ, ১১ জুলাই: দেশজুড়ে কর্মসংস্থানের জমি তৈরি করতে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নিয়ে আসা হয়েছে। যে স্কিমের মাধ্যমে দেশের একেবারে প্রান্তিক, নিম্ন মধ্যবিত্ত, গরিব শ্রেণীর মানুষেরা কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে বিশেষ আর্থিক সহায়তা পাবে। শুধু তাই নয়, এই প্রকল্পের মাধ্যমে যারা যুক্ত হবেন, তারা সরকারের তরফে সমস্ত ধরনের সুবিধা পেয়ে যাবেন। কেন্দ্রীয় সরকার এই প্রকল্পটি প্রান্তিক মানুষদের জীবন যাপনের মান উন্নয়ন এবং তাদের কর্মসংস্থানের ক্ষেত্র প্রস্তুত করার লক্ষ্যেই গ্রহণ করেছে। ২০২৩ সালের বিশ্বকর্মা পুজোর দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই প্রকল্পের সূচনা করেন। প্রকল্পটির নাম- বিশ্বকর্মা যোজনা প্রকল্প (PM Biswakarma Yojana)

গুলি করে প্রাণে মারার হুমকি পেলেন তৃণমূল সাংসদ, প্রাণভয়ে ভীত বিধায়ক মদনও

প্রথমেই জেনে নেওয়া যাক, বিশ্বকর্মা যোজনা প্রকল্পের সুবিধাগুলি কি?

এই প্রকল্পের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকার দেশের যে সমস্ত মানুষ বিভিন্ন ধরনের শিল্প-কর্মের সঙ্গে জড়িত তাদের আধুনিক মানের প্রশিক্ষণ দিয়ে বিশ্ব বাজারে তাদের তৈরি সামগ্রী বিপণনের ক্ষেত্রে সহায়তা করছেন। তার সঙ্গে গ্যারান্টি ছাড়া লোনের সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি, বিশ্বকর্মা যোজনা প্রকল্পে যারা প্রশিক্ষণ নেবেন, তাদের আধুনিক মানের প্রশিক্ষণ সহ ইনসেন্টিভ সমেত একটি টুল কিট দেওয়া হবে। বিশ্বকর্মা যোজনায় যে সমস্ত শিল্পকর্মের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা রোজগার করে নিজের সংসার প্রতিপালন করেন, তাদের আধুনিকমানের প্রশিক্ষণ দেওয়া, ডিজিটাল আর্থিক লেনদেন (Digital Transaction) সম্পর্কে অবহিত করা, প্রোডাক্ট ব্র্যান্ডিং, Marketing, গ্যারান্টি ছাড়া লোনের সুবিধা দিয়ে সমস্ত ব্যক্তিদের হাতের কাছেই কাজের সুযোগ করে দেওয়ার লক্ষ্যেই এই প্রকল্প।

‘খোরপোশ  অধিকার দয়া দাক্ষিণ্য নয়’ মুসলিম মহিলাদের আলোর নিশানা

পিএম বিশ্বকর্মা যোজনায় নাম নথিভুক্ত করলে ৫-৭ দিনের যে ট্রেনিং দেওয়া হবে, তখন প্রতিদিন ৫০০ টাকা করে স্টাইপেন্ড পাবেন কারিগররা। পাশাপাশি, আধুনিক মানের ট্রেনিং থেকে শুরু করে ডিজিটাল লেনদেন, মার্কেটিং, ব্র্যান্ডিংয়ের সমস্ত সহায়তা করবে কেন্দ্রীয় সরকার।
কোনোরকম গ্যারান্টি ছাড়া ১ লক্ষ টাকা লোন দেওয়া হবে। যা ১৮ মাস সময়ের মধ্যে ধাপে ধাপে শোধ করতে পারবেন।
১. কারা এই বিশ্বকর্মা যোজনা প্রকল্পে আবেদনের যোগ্য:
১৮ বছর বয়স হলেই আবেদন করা যাবে।
বিভিন্ন শিল্প কর্মের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি যেমন, কামার, কুমোর, চর্মকার, নাপিত, ধোপা, দর্জি, নৌকা প্রস্তুতকারী, স্বর্ণকার, নির্মাণ শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি, মূর্তিশিল্পী, ভাস্কর্য শিল্পী সহ বিভিন্ন ধরনের হাতের কাজের সঙ্গে যারা যুক্ত, তারাই আবেদন করতে পারবেন।
প্রত্যেককেই পিএম বিশ্বকর্মা যোজনার অধীনে সার্টিফিকেট এবং আইডি কার্ড দেওয়া হবে প্রশিক্ষণ পর্ব শেষ হওয়ার পরে।
২. কিভাবে এই প্রকল্পে আবেদন করবেন:
প্রথমেই PM Viswakarma পোর্টালে গিয়ে Home অপশনে ক্লিক করুন।
এরপর How to Register অপশন এ ক্লিক করে মোবাইল নম্বর এবং আধার নম্বর ভেরিফিকেশন করতে হবে।
তারপর পিএম বিশ্বকর্মা যোজনার প্রশিক্ষণের পরে পাওয়া সার্টিফিকেট এবং আইডি কার্ড আপলোড করতে হবে।
এরপরেই পিএম বিশ্বকর্মা যোজনার অধীনে নাম নথিভুক্ত হয়ে যাবে। কেন্দ্রীয় সরকারের এই যোজনা প্রকল্পের সুবিধা লাভ করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর