Narendra Modi Road Show

ব্যুরো নিউজ, ৩ মে : কৃষ্ণনগরের বিজেপি প্রার্থী রাজমাতা অমৃতা রায়ের সমর্থনে সভা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অন্যান্য দিনের মতোই এদিন প্রধানমন্ত্রীকে যুদ্ধং দেহি মেজাজেই দেখা গেল। উল্লেখ্য এতদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নির্বাচনী প্রচারে এসে দলকে ৪২টি আসনের লক্ষ্যমাত্রা বেধে দিতেন। এদিনও তাই করলেন। তবে শুধু আসুনের লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দিয়ে এদিন প্রধানমন্ত্রী থেমে থাকেননি। কটাক্ষের সুরে এবার তৃণমূল গোটা দেশে কটা আসন পাবে তারও ভবিষ্যৎবাণী করে দিয়েছেন মোদী। শুধু তৃণমূল না হাত শিবির এবং বামেদের জন্য আসল সংখ্যা বেঁধে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

রাজ্যপাল ইস্যুতে দিলীপের নিশানায় তৃণমূল

নিজের দলের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন না প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে! কিন্তু কেন?

কংগ্রেস ও বাম শিবিরের জন্যও ভবিষ্যৎবাণী প্রধানমন্ত্রী

এ প্রসঙ্গে সভা থেকে এদিন তিনি বলেন, এই নির্বাচন দেশের নির্বাচন। এটা গোটা হিন্দুস্থানের জন্য সরকার নির্বাচন করার সুযোগ। দেশে সরকার কে গঠন করতে পারে? তৃণমূল কংগ্রেস তো পুরো দেশে ১৫ট আসনও জিততে পারবে না। এবার আপনারা আমাকে বলুন তৃণমূল কংগ্রেস ১৫টা আসন নিয়ে সরকার গঠন করতে পারবে কি? আমাকে উত্তর দিন ১৫ আসন নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার গঠন করতে পারবে কি?’ এরপরই কংগ্রেস ও বামেদের নিশানা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কংগ্রেসও পুরো দেশে যতই শক্তি লাগিয়ে দিক, এবার অর্ধ শতরান করা মুশকিল। ৫০টি আসুন পেতেও ওদের সমস্যা হবে। এবার বলুন ৫০টি আসনও তো পাচ্ছে না, ওরা কি সরকার গঠন করতে পারবে?’ প্রশ্ন তোলেন মোদী।

এদিন কৃষ্ণনগরের বিজেপি প্রার্থী অমৃতা রায়কে ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর হাত শক্ত করা রাজ্যে জানান মোদী। এর পাশাপাশি বিজেপিকে ভোট দিয়ে, আসন জিতিয়ে উন্নয়নের পথ প্রশস্ত করারও আরজি জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এখন দেখার কৃষ্ণনগরে অমৃতা রায় নাকি মহুয়া মৈত্র কার পাল্লা ভারী হয়। উত্তরের জন্য ৪ জুন পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে।

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর