election commission

ব্যুরো নিউজ, ৯ মে: ভোটের মাঝেই সরানো হল বহরমপুর থানার আইসিকে। গতকাল কংগ্রেস প্রার্থী অধীর চৌধুরীকে প্রচারে বাধা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ওঠে। আর তার পরেই এই অভিযোগ জানিয়ে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দেওয়া হয়। সেই চিঠিতে প্রদেশ কংগ্রেসের সংগঠনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা নিলয় প্রামাণিক দাবি করেন যে, রাজ্যের শাসকদল কংগ্রেসের নির্বাচনী প্রচারে বাধার সৃষ্টি করছে।  অভিযোগ, প্রচারের অনুমতি  থাকা স্বত্বেও সালারে প্রচার করলে তৃণমূলের লোকজন বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করে। ঘটনায় মঞ্চে উঠতে না পারলে বাধ্য হয়ে গাড়ি থেকেই ভাষণ দেন অধীর চৌধুরী।

জুলাইয়ে হাসিনাকে ভারত সফরে আসার আমন্ত্রণ মোদীর

কোভিড ভ্যাকসিন তুলে নিচ্ছে অ্যাস্ট্রাজেনেকা

এছাড়াও কান্দিতে তৃণমূলের প্রচারের জন্য কংগ্রেসের পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি বাতিল করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করে কংগ্রেস। এমনকি এ নিয়ে বৃহস্পতিবার কংগ্রেসের তরফে কমিশনকে আবারও একটি চিঠি দেওয়া হয়। সেখানেও বহরমপুর থানার আইসি উদয়শঙ্কর ঘোষের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ জানানো হয়। এরপরেই পদক্ষেপ নেয় কমিশন। আজ দুপুরেই বহরমপুর থানার আইসি উদয়শঙ্কর ঘোষকে সরানোর নির্দেশ দেয় নির্বাচন কমিশন।

BJP Helpline

কংগ্রেসের আরও অভিযোগ করে যে, বহরমপুরের তৃণমূল প্রার্থী ইউসুফ পাঠান অধীর চৌধুরীর ফোন নম্বর লিফলেট ছাপিয়ে তা বিলি করছে। ফলে, সাধারণ -সহ নানা ভুয়ো ফোন আশায় কার্যত নাজেহাল কংগ্রেস প্রার্থী অধীর চৌধুরী। এই সকল অভিযোগ জানানোর পরেই বৃহস্পতিবার দুপুরে  আইসিকে সরিয়ে দেয় কমিশন। এর পাশাপাশি কমিশন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিককে নতুন আইসি নিয়োগ করার নির্দেশও দেয়। তবে আইসি উদয়শঙ্কর ঘোষকে কি কারনে সরানো হল তার কারন জানায়নি কমিশন।

 

 

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর