Madhyamik scrutiny issue

ব্যুরো নিউজ, ১ জুলাই: গত শুক্রবারই চলতি বছরের মাধ্যমিকের স্ক্রুটিনি রিপোর্ট সম্পর্কে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ সভাপতি রামানুজ গঙ্গোপাধ্যায় জানান, ১২ হাজার ৪৬৮ টি উত্তরপত্রে নম্বর যোগে গন্ডগোল ছিল। দেখা গিয়েছে সর্বাধিক ২২ নম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে পরীক্ষার্থীদের। আর রিভিউ ও স্ক্রুটিনির পর আরও ৭ জন পরীক্ষার্থী র‍্যাঙ্কে ঢুকছে। আর এই ঘটনায় পরীক্ষকদের সতর্ক করল পর্ষদ।

নির্যাতিতার ই-স্টেটমেন্ট আইনত গ্রাহ্য হবে। নয়া আইনে মহিলাদের জন্য এই বিশেষ ব্যবস্থা, আর কী বললেন শাহ?

সূত্রের খবর মারফৎ জানা গিয়েছে, পর্ষদের তরফে বেশ কয়েকজন শিক্ষককে ডেকে পাঠানো হয়েছে। কীভাবে মাধ্যমিকের মত এক গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষায় এমন হল তা জানতে চেয়েছে পর্ষদ। পাশাপাশি পরীক্ষকদের সতর্কও করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

BJP Helpline

একটা দুটো নয়, অজস্র পরীক্ষার খাতায় নম্বর যোগে ভুল। এমনকি কোথাও আবার এমসিকিউ নম্বর যোগ করতে ভুল হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আর এ কারনে সর্বাধিক ২২ নম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। ৬৩ লক্ষ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ১২ হাজার পরীক্ষার্থীর খাতায় নম্বর যোগে ভুল। ঘটনায় শিক্ষকদের দায়িত্বজ্ঞান নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

এদিকে নম্বর বাড়ায় মেধাতালিকাতেও বদল এসেছে। স্ক্রুটিনির পর আরও ৭ জন পরীক্ষার্থী র‍্যাঙ্ক করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর