বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

Recipe 

বাড়িতেই তৈরি করুন কষা কষা মুরগির মেটে চচ্চড়ি

ব্যুরো নিউজ, ১০ জুলাই : মুরগির মাংস অনেকেই খেতে ভালোবাসেন। অনেক রকম ভাবেই মুরগির মাংস তৈরি করা যায়। কিন্তু মুরগির মেটে চচ্চড়ি কি কোনও দিন খেয়েছিন। অনেকেই মুরগির মেটের আঁশটে গন্ধের জন্য খেতে চান না। কিন্তু এই পদ্ধতিতে একবার খেলে মুখে লেগে থাকবে। একথালা ভাত উঠে যাবে। রুটি দিয়েও খেতে পারেন। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক কীভাবে বানাবেন মুরগির মেটে চচ্চড়ি। বিরাট কোহলির রেস্তোরাঁর নামে FIR! মধ্যরাতে কী এমন ঘটল? ভাত, রুটি দুইয়ের সঙ্গেই জমে যাবে উপকরণ : ২৫০ গ্রাম চিকেনের মেটে, ২টো পেঁয়াজ কুচি কুচি করে কাটা, ৬ চা চামচ সর্ষের তেল, স্বাদ মতো নুন, ১/২ চা চামচ হলুদ, ১টা টমেটো কুচি কুচি করে কাটা, ১ চা চামচ আদা বাটা, ১ চা চামচ রসুন বাটা, ১ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, ১ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, ১/৩ কাপ ধনেপাতা কুচি, ১/২ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো, ১টি তেজপাতা, এক চিমটে চিনি আর পরিমাণ মতো জল। পদ্ধতি : প্রথমে মুরগির মেটেটা ভাল করে ধুয়ে নিন। এতে সামান্য নুন ও হলুদ মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। কড়াইতে সর্ষের তেল গরম করুন। এতে এক চিমটে চিনি, তেজপাতা, আদা বাটা ও রসুন বাটা দিয়ে দিন। এটা একটু নাড়াচাড়া করুন। কিছুক্ষণ পর এতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভাল করে ভেজে নিন। পেঁয়াজ ব্রাউন হয়ে গেলে বুঝবেন ভাজা হয়ে গেছে। এরপর এতে টমেটো কুচি দিয়ে দিন। এরপর একে একে সব মশলা দিয়ে দিন। হলুদ গুঁড়ো, লাল লঙ্কার গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো দিয়ে দিয়ে ভাল করে মশলাটা কষিয়ে নিন। এরপর এতে মুরগির মেটেগুলো দিয়ে দিন। এবার গ্যাস কমিয়ে দিয়ে কষাতে থাকুন। মশলা থেকে তেল ছাড়তে শুরু করলে জানবেন কষা হয়ে গিয়েছে। এরপর এতে সামান্য গরম জল দিয়ে দিন। এতে মেটেগুলো ভাল করে সেদ্ধ হবে। মেটে চচ্চড়ি মাখোমাখো হয়ে এলে গরম মশলা ছড়িয়ে নামিয়ে নিন। এরপর উপর দিয়ে ধনে পাতা কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন মেটে চচ্চড়ি। খেয়ে দেখুন দারুণ লাগবে।

আরো পড়ুন »
hair care tips

চুলের যত্নে বাড়িতেই তৈরি করুন হেয়ার প্যাক

ব্যুরো নিউজ, ১০ জুলাই : যে কোনও সিজনেই কিন্তু চুলের জন্য বাড়তি যত্নের প্রয়োজন। ঝলমলে সুন্দর চুল কিন্তু সকলেই পছন্দ করেন। তবে তার জন্য কিন্তু বিশেষ যত্ন নিতে হবে। নারকেল তেলকে প্রাকৃতিক কন্ডিশনার বলা হয়। চুলের যত্নে সপ্তাহে ২-৩ দিন চুলে নারকেল লাগাতে পারেন। চাইলে নারকেল তেলের সঙ্গে সামান্য লেবুর রসও দিতে পারেন। এছাড়াও চুলের যত্নে হেয়ার প্যাক ব্যবহার করতে পারেন। তবে মাথায় রাখবেন চুলের ধরন অনুযায়ী হেয়ার প্যাক ব্যবহার করবেন। পাহাড় ডাকছে! কোথায় যাবেন বুঝে উঠতে পারছেন না? রইল একগুচ্ছ জায়গার সন্ধান চুলের ধরন অনুযায়ী প্যাক তৈরি করুন চুলের যত্নে তেল মালিশ : প্রথমে একটি স্টিলের বাটিতে তেল নিন। অন্য একটি বড় পাত্রে গরম জল নিন। এর ওপর তেলের বাটি রাখুন। তেল উষ্ণ গরম হলে বাটি নামিয়ে নিন। চাইলে লেবুর রস যোগ করতে পারেন। সব ধরনের চুলের জন্যই তেলে লেবুর রস দেওয়া যায়া। এতে খুশকিও দূর হয়। এই তেল ভালোভাবে মালিশ করে নিন। তেল মালিশের পর গরম জলে ভেজানো তোয়ালে মাথায় ২০ মিনিট জড়িয়ে রাখুন। শুষ্ক চুলের জন্য প্যাক : ত্রিফলার গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ, মেথি ১ টেবিল চামচ, টক দই আধ কাপ, অ্যালোভেরার নির্যাস আধ কাপ। সঙ্গে নিন ১টি ডিম। সব উপকরণ ব্লেন্ড করে প্যাক বানিয়ে ফেলুন। এই প্যাকও লাগিয়ে আধ ঘণ্টা রাখুন। এরপর ধুয়ে শ্যাম্পু করে নিন। সবশেষে কন্ডিশনার দিতে কিন্তু ভুলবেন না। স্বাভাবিক চুলের জন্য প্যাক : ত্রিফলার গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ। ১ টেবিল চামচ মেথি, আধ কাপ টক দই ও একটি ডিম। সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে প্যাক তৈরি করুন। প্যাক লাগানোর পর আধ ঘণ্টা রাখুন। এরপর ভালো করে চুল ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন।

আরো পড়ুন »
Offbeat north bengl trip

পাহাড় ডাকছে! কোথায় যাবেন বুঝে উঠতে পারছেন না? রইল একগুচ্ছ জায়গার সন্ধান

ব্যুরো নিউজ, ১০ জুলাই : হাতে ৩- ৪ টে দিনের সময় পেলেই মনটা কেমন পালাই পালাই করে। কিন্তু হঠাৎ করে বুঝে ওঠাই তখন কঠিন হয়ে পড়ে যে যাব তো যাব কোথায়? তাই আজ রইল একগুচ্ছ জায়গার সন্ধান। ঘুরে আসি নির্জন ছোট্ট পাহাড়ি গ্রাম ফিক্কালে গাঁও ট্রিপ -১ সিটং, অহলদাঁড়া, লাটপাঞ্চার, কয়লাগুদাম, তুরুক, মাহালদিরাম, চিমনি, বাগোরা, সেল্পু, সোরেন, শিবখোলা, যোগিঘাট, মংপু। শিলিগুড়ি, নিউ জলপাইগুড়ি বা বাগডোগরা থেকে গাড়ি নিয়ে চলে আসুন সিটং, সেখানেও এক রাত থাকতে পারেন। এছাড়া, অহলদাঁড়া ও শিবখোলা বা যোগিঘাটেও থাকতে পারেন। আসা যাওয়ার পথে বাকি জায়গাগুলি দেখ নিতে পারেন। ট্রিপ -২ তাকদা, তিনচুলে, রামপুরিয়া, কোলবং, ছোটা মাঙ্গয়া, বড় মাঙ্গয়া, লামাহাট্টা, পেশক, রঙ্গারুণ, দাওয়াইপানি, চটকপুর, তিস্তা ভ্যালি, রংলি-রংলিয়ট, রঞ্জু ভ্যালি, ছয় মাইল। ঘুরে আসি: কালিম্পংয়ের এক অজানা গ্রাম গোকুল শিলিগুড়ি, নিউ জলপাইগুড়ি বা বাগডোগরা থেকে গাড়ি নিয়ে চলে আসুন তিনচুলে, সেখানেও এক রাত থাকতে পারেন। এছাড়া, দাওয়াইপানি ও রামপুরিয়াটতেও থাকতে পারেন। অন্যান্য জায়গাগুলি সাইট সিনে ঘুরে দেখ নিতে পারেন। ট্রিপ -৩ দার্জিলিং, লেপচাজগৎ, ঘুমভঞ্জং, সিংতাম, গুমতিগাঁও, লেবং, সোনাদা, রংবুল, খোরসং, বিজনবাড়ি, ঝেঁপি, নয়া বস্তি সুখিয়া, গুরাস, তাবাকোশি, রংভঙ, মিরিক। শিলিগুড়ি, নিউ জলপাইগুড়ি বা বাগডোগরা থেকে গাড়ি নিয়ে চলে আসুন লেপচাজগৎ, সেখানেও এক রাত থাকতে পারেন। এছাড়া, নয়া বস্তিতেও থাকতে পারেন। বাকি জায়গাগুলি সাইট সিনে ঘুরে দেখ নিন। হাতে সময় থাকলে দার্জিলিং-এও ঢু মেরে যেতে পারেন। তবে দার্জিলিং-এর লোকাল সাইটসিন -টাইগার হিল, বাতাসিয়া, ঘুমও মিস হবে না। ট্রিপ -৪ মানেভঞ্জন, ধোত্রে, টংলু, টুমলিং, কালিপোখরি, সান্দাকফু, ফালুট, গোর্খে, সামানদিন, রিম্বিক। নিজের পছন্দ মতন যে কোনও একটি ট্যুরকে ফাইনাল করে লেগে পড়া যাক ট্যুর প্ল্যানে। তবে ট্রিপ -৪ মার্চ- এপ্রিল বা অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর এই সময়ের মধ্যে করাই ভাল। https://youtu.be/22goXpcElf8

আরো পড়ুন »
Urvashi Rautela Hospitalised

হাসপাতালে ভর্তি অভিনেত্রী উর্বশী রাওতেলা

ব্যুরো নিউজ, ১০ জুলাই : হাসপাতালে ভর্তি অভিনেত্রী উর্বশী রাওতেলা। কিন্তু কী এমন হল যার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হতে হল অভিনেত্রীকে? সূত্রের খবর শ্যুটিং চলাকালীন দুর্ঘটনার শিকার হন অভিনেত্রী। হায়দরাবাদে তেলুগু সুপারস্টার নন্দমুরি বালাকৃষ্ণর ‘NBK 109’-এর শ্যুটিং চলছিল। একটি অ্যাকশন দৃশ্যে শ্যুটিংয়ের সময় গুরুতর চোট পান অভিনেত্রী। তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বিরাট কোহলির রেস্তোরাঁর নামে FIR! মধ্যরাতে কী এমন ঘটল?  শ্যুটিং ফ্লোরে গুরুতর আহত অভিনেত্রী অভিনেত্রীর টিম জানিয়েছে, অভিনেত্রীর চোট বেশ গুরুতর। চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। প্রসঙ্গত, ‘NBK 109’ ছবির শ্যুটিং গত বছর নভেম্বর মাসে শুরু হয়েছিল। চলতি বছরের অক্টোবর মাসে ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা। তার আগে চোট পেলেন অভিনেত্রী। উল্লেখ্য, ২০১৩-য় সানি দেওলের ‘সিং সাব দ্য গ্রেট’ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনেত্রী হিসেবে আত্মপ্রকাশ অভিনেত্রী উর্বশী রাওতেলার। তারপরে সিনেমায় তাঁর নজরকাড়া অভিনয় না হলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় অভিনেত্রী। তবে বেশ কিছুদিন যাবৎ ক্রিকেটার ঋষভ পন্থের সঙ্গেও নাম জড়িয়েছে অভিনেত্রীর। অন্যদিকে উর্বশীর চোট নিয়ে উদ্বিগ্ন তার ভক্তরা। তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন সকলে।

আরো পড়ুন »
Home Tips

ঘরের দেওয়ালে রং করার ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলি নজর রাখা প্রয়োজন

ব্যুরো নিউজ, ৮ জুলাই : দেওয়ালে ঠিকঠাক রঙ কিন্তু বদলে দিতে পারে আপনার ঘরের সৌন্দর্য। তবে চাইলেই তো আর সব সময় দেওয়ালে রং করা সম্ভব হয় না। বাজেটের বিষয়টিও মাথায় রাখতে হয়। তবে দেওয়ালে রং করার কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম ও পদ্ধতি রয়েছে। বিকেলে টিফিনে বানাতে পারেন কাঁচকলা-পনির চপ দেওয়ালের রঙই বাড়ির সৌন্দর্য বদলে দিতে পারে এখনকার সময়ে দেওয়ালের রঙের নতুন ট্রেন্ড হলো টেক্সচার পেইন্ট ও স্ক্রিন পেইন্ট। ঘরের তিন দেওয়াল অফ হোয়াইট কিংবা হালকা কোনো রং রেখে বাকি এক দিকের দেওয়ালে টেক্সচার পেইন্ট করা হয়। টেক্সচার পেইন্ট দেওয়ালে অমসৃণ একটা ভাব ফুটিয়ে তোলে। রং বাছাইয়ের সময় আরও কিছু বিষয় নজরে রাখা উচিত। তবে বাড়ির আলাদা আলাদা ঘরে আলাদা আলাদা রং করলে সৌন্দর্য কিন্তু অন্য মাত্রায় পৌঁছে যায়। ড্রয়িংরুম: বাইরের কোন লোক এলেই কিন্তু এই ঘরটিতে বসানো হয়। বাইরের লোকের চোখে কিন্তু এই ঘরটিকে আকর্ষণীয় করে তোলা বেশ প্রয়োজন। সেই কারণে এই ঘরে রোজ বেরি, ওশান গ্রিন, ফ্রেঞ্চ গ্রে, ভায়োলেট, ক্রিম ও লেমন ইয়েলো হতে পারে ভালো রং। ডাইনিং রুম: ডাইনিং রুমে হলুদ বা কমলার মতো উষ্ণ, উজ্জ্বল কোনো রঙ ব্যবহার করতে পারেন। খাবার ঘরের দেওয়াল ফ্লোরাল মোটিফের করা যেতে পারে। অথবা ফুলের মধ্যে প্রজাপতির কোনো মোটিফ বেছে নিতে পারেন। বেডরুম: সারাদিনের দৌড়ঝাঁপের পর আপনার শান্তির জায়গা কিন্তু এই বেডরুমটাই। তাই শোবার ঘরে হালকা, সতেজ, শান্ত ও স্নিগ্ধ আমেজ রাখা উচিত। এ ক্ষেত্রে হোয়াইট, অফ হোয়াইট, লাইট ভায়োলেট, লাইট গ্রিন, লেমন ইয়েলো, ফ্রেঞ্চ গ্রে, ক্রিম ইত্যাদি শীতল রং ব্যবহার করা যেতে পারে। শিশুদের ঘর: শিশুদের ঘরে রংয়ের ক্ষেত্রেও কিন্তু বিশেষ নজর দেওয়া প্রয়োজন। কারণ রঙ শিশুদের মনের উপর অনেকটাই প্রভাব ফেলে। শিশুদের ঘরে রং করার আগে তার সঙ্গে কথা বলে পছন্দ বুঝে নেওয়া যেতে পারে। শিশুর পছন্দের কোনো চরিত্র থাকলে সেটাও আঁকিয়ে নিতে পারেন। মোট কথা শিশুদের ঘরের রং হোক শিশুদের পছন্দমতই।

আরো পড়ুন »
Recipe

বিকেলে টিফিনে বানাতে পারেন কাঁচকলা-পনির চপ

ব্যুরো নিউজ, ৯ জুলাই : বিকেলের টিফিনে কী খাবেন ভাবছেন? ভাবছেন বাড়িতে কিছু একটা বানিয়ে খেলে মন্দ হয় না তাই তো? কিন্তু কী খাবেন বুঝতে পারছেন না। বৃষ্টির দিনে যেকোনও ধরনের মুচমুচে গরম গরম চপ হলে মন্দ হয় না। কিন্তু কী চপ বানানো যায় সেটাই ভাবছেন তাই তো। তাহলে আজকে আপনাদের সঙ্গে এমন একটি রেসিপি শেয়ার করব যেটি বিকেলে টিফিনের জন্য একদম পারফেক্ট। আবার খুব সহজেই কম সময়ে বাড়িতে বানিয়ে নিতে পারবেন। দেখে নেওয়া যাক কীভাবে বানাবেন কাঁচকলা-পনির চপ। প্যাকেটজাত খাবার নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিল FSSAI খুব সহজে ঘরোয়া উপাদানে বানান এই রেসিপি উপকরণ : কাঁচকলা ৪টি, পনিরকুচি ২ কাপ, কাঁচা লঙ্কাকুচি ২ চা-চামচ, আদাকুচি ১ চা–চামচ, ময়দা ২ চা-চামচ, ধনেপাতাকুচি ১ চা-চামচ, নুন স্বাদমতো, তেল আধ লিটার। পদ্ধতি: কাঁচকলা-পনির চপ বানানোর জন্য প্রথমে খোসাসহ কাঁচকলা সেদ্ধ করে নিন। ঠান্ডা করে খোসা ছাড়িয়ে ভালোভাবে চটকে মিহি করে নিন। এবার এতে বাকি সব উপকরণ ভালোভাবে মেখে পছন্দমতো আকারে তৈরি করুন। এবার ডুবো তেলে ভেজে নিন। এরপর গরম গরম প্লেটে সাজিয়ে পরিবেশন করুন। বিকেলের টিফিনটা জমে যাবে।

আরো পড়ুন »
offbeat dooars

বর্ষায় ঘুরে আসি অচেনা ডুয়ার্স

ব্যুরো নিউজ, ৯ জুলাই: বর্ষায় অ্যাডভেঞ্চারলাভারদের অন্য পছন্দ এই ডুয়ার্স। অবিরাম বৃষ্টির মাঝে জঙ্গলের এক প্রান্তে ছোট্ট হোমস্টেতে বসে এই চির সবুজকে উপভোগ করার মজাই আলাদা। তবে এ ডুয়ার্স আপনার চেনা নয়। ঘুরে আসি নির্জন ছোট্ট পাহাড়ি গ্রাম ফিক্কালে গাঁও ডুয়ার্স ট্রিপ বলতেই আমরা বুঝি, তিন রাত চারদিনের প্যাকেজ ট্যুর। তবে বর্ষায় অফবিট ডুয়ার্সের মজা যদি নিতে চান তবে আপনাকে চলে আসতেই হবে নাগরাকাটায়। ঘুরে আসি: কালিম্পংয়ের এক অজানা গ্রাম গোকুল এখানে রয়েছে ছোট্ট ঝোরা। যা কুলু কুলু শব্দে বয়ে চলে নিজের ছন্দে। একদিকে রয়েছে ডায়নার জঙ্গল আর নদী। আরেকদিকে ভগতপুর চা বাগান। তবে এই সব কিছুই উপভোগ করতে পারবেন একটি জায়গায় বসেই। আর তা হল নাগরাকাটা Royal Eco hut। তাই সময় করে বেড়িয়েই পড়ুন অফবিট ডুয়ার্সের ঘ্রান নিতে নাগরাকাটা Royal Eco hut-এর উদ্দেশ্যে। এখানের মানুষের আতিথিওতা, ঘরোয়া রান্না আপনার মন কাড়বেই। কীভাবে আসবেন? শিলিগুড়ি, নিউজলপাইগুড়ি বা বাগডোগরা থেকে গাড়ি বুক করে চলে আসুন নাগরাকাটায়। কী কী ঘুরবেন? এখন বর্ষার সময়ে বন্ধ থাকে অভয়ারণ্য। যথারীতি বন্ধ জঙ্গল সাফারিও। তাই কয়েকটা দিন হাতে সময় নিয়ে চলে আসুন এখানে। আর এখান থেকেই উপভোগ করুন বর্ষায় অফবিট ডুয়ার্সের জঙ্গল। তবে চাইলে গতে বাঁধা প্যাকেজ ট্রিপ গুলিও করে নিতে পারেন এখানে থেকে। গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে পড়তে পারেন চম্পাগুড়ি, হিলা, জিতি, কুরতি, জিরোবান-এর পথে।

আরো পড়ুন »
Chicken Recipe

বাড়িতেই বানান চিকেন কাবাব মালাইকারি

ব্যুরো নিউজ, ৮ জুলাই : চিকেন অনেক রকম ভাবেই তৈরি করা যায়। তবে সবসময় বেশি তেল মশলা দিয়ে চিকেন তৈরি না করে মাঝে মাঝে হালকা মশলা দিয়েও অন্য পদ্ধতিতে চিকেন তৈরি করতে পারেন। যেটা খেতে হবে সুস্বাদু আবার স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারী। দেখে নেওয়া যাক কীভাবে বানাবেন চিকেন কাবাব মালাইকারি। গরম খাবার খেতে গিয়ে জিভ পুড়ে গেছে? হালকা তেল, মশলায় এই পদ্ধতিতে বানান চিকেন উপকরণ: মুরগির কিমা আধ কেজি, ক্রিম ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ মিহি করে কুচি ১টি, আদাবাটা আধ চা–চামচ, রসুনবাটা আধ চা–চামচ, জিরেগুঁড়ো ১ চা–চামচ, গরম মশলার গুঁড়ো ১ চা–চামচ, ব্রেড ক্রাম্ব সিকি কাপ, ধনেপাতাকুচি আধ চা–চামচ, পুদিনা পাতা কুচি আধ চা–চামচ, কাঁচা লঙ্কাকুচি ৩–৪টি, নুন স্বাদমতো ও তেল ২ টেবিল চামচ। পদ্ধতি: তেল বাদে সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে ভালো করে মেখে নিন। শিক কাবাবের মতো একটু লম্বা আকারে তৈরি করে নিয়ে কম তেলে লালচে করে ভেজে তুলুন। এবার দেখা যাক গ্রেভি তৈরি করবেব কীভাবে? গ্রেভির উপকরণ: মোটা করে কাটা পেঁয়াজ ১টি, কাজুবাদাম ১০টি, কাঁচা লঙ্কা ৪টি, ধনেপাতাকুচি ১ টেবিল চামচ, আদাবাটা ১ চা–চামচ, রসুনবাটা আধ চা–চামচ, জিরেগুঁড়ো ১ চা–চামচ, গরম মশলার গুঁড়ো আধ চা–চামচ, দই ২ টেবিল চামচ, কসুরি মেথি ১ চা–চামচ, ক্রিম ১ টেবিল চামচ, নুন স্বাদমতো, তেল ১ চা–চামচ ও ঘি ২ টেবিল চামচ। পদ্ধতি: একটি পাত্রে ১ চা–চামচ তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজকুচি, কাজুবাদাম, কাঁচা লঙ্কা আর ধনেপাতা দিয়ে হালকা করে ভাজুন। অল্প জল দিয়ে এটাকে এবার ব্লেন্ড করে নিতে হবে। অন্য একটা পাত্রে ঘি, আদা-রসুনবাটা দিয়ে ২–৩ মিনিট ভেজে নিন। এরপর তাতে ব্লেন্ড করে রাখা ভাজা পেঁয়াজ-বাদামের মিশ্রণসহ বাকি উপকরণ অল্প জল দিয়ে কষিয়ে নিন। এর মধ্যে ভেজে রাখা কাবাবগুলো দিয়ে ৬–৭ মিনিট রান্না করলেই তৈরি চিকেন কাবাব মালাইকারি। একবার বানিয়ে দেখুন মুখের স্বাদই বদলে দেবে।

আরো পড়ুন »
Vicky With Tripti

নীল বিকিনিতে ভিকির সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে তৃপ্তি

ব্যুরো নিউজ, ৮ জুলাই : নীল বিকিনিতে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ভিকি কৌশলের সঙ্গে তৃপ্তি দিমরি। এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হতেই কমেন্টের বন্যা বইয়ে দিয়েছেন নেটিজেনরা। গত বছর ‘অ্যানিমেল’ ছবিটি মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই আলোচনায় উঠে এসেছেন বলিউডের এই অভিনেত্রী। সেই সিনেমায় বেশ কিছু অন্তরঙ্গ দৃশ্যে দেখা গেছে অভিনেত্রীকে। এবার ‘ব্যাড নিউজ’ সিনেমার একটি গানে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে দেখা যাবে তৃপ্তি দিমরিকে। সেই গানেরই একটি ছবি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়া ঝড় তুলেছেন এই অভিনেত্রী। গরম খাবার খেতে গিয়ে জিভ পুড়ে গেছে? টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত মুম্বই, বন্ধ ট্রেন পরিষেবা ক্যাটরিনাকে নিয়ে কেন চিন্তায় পড়লেন ভক্তরা? ৯ জুলাই মুক্তি পাবে ‘ব্যাড নিউজ’ সিনেমার গান ‘জানম’। ইনস্টাগ্রামে এই গানের একটি ছবি ও টিজার পোস্ট করেছেন তৃপ্তি। ছবিতে তৃপ্তিকে ভিকির সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে দেখা গিয়েছে। তৃপ্তিকে দেখা গেছে নীল বিকিনিতে। এর পর থেকেই অভিনেত্রীকে নিয়ে নতুন করে চর্চা শুরু হয়েছে। অন্যদিকে দুজনের এই ধরনের ছবি দেখে ক্যাটরিনাকে নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন ভক্তরা। ক্যাটরিনার উদ্দেশ্যে একজন লিখেছেন, ‘আমি ক্যাটরিনা হলে এটা কিছুতেই সহ্য করতাম না। তুমি প্রতিবাদ করো প্লিজ।’ অন্যদিকে ভিকির উদ্দেশ্যে একজন লিখেছেন, ‘ক্যাটরিনাকে একটু তো ভয় পান ভাই।’ কেউ আবার লিখেছেন, ‘ভাই, আপনার স্ত্রী কি আপনাকে মারধর করে না? এগুলো করেন কী করে?’ অনেকে আবার তৃপ্তির লুকের প্রশংসাও করেছেন। আগামী ১৯ জুলাই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে করণ জোহর প্রযোজিত ও আনন্দ তিওয়ারি পরিচালিত ‘ব্যাড নিউজ’।

আরো পড়ুন »
Health Tips

গরম খাবার খেতে গিয়ে জিভ পুড়ে গেছে?

ব্যুরো নিউজ, ৮ জুলাই : গরম খাবারের স্বাদই আলাদা। তবে অনেক সময় গরম খাবার খেতে গিয়ে বিপত্তিও ঘটে। গরম খাবার খেতে গিয়ে অনেকে জিভ পুড়িয়ে ফেলেন। ফলে ওই অংশটি পড়ে গিয়ে জ্বালা করে, লাল হয়ে যায়। এরপর কোন খাবার খেতে গেলে ব্যথা লাগে। অনেকে গরম চা বা কফি তাড়াহুড়ো করে খেতে দিও জিভ পুড়িয়ে ফেলেন। তবে কখনো যদি এরকম ঘটে থাকে তাহলে ঘাবড়াবার কিছু নেই। একটি ছোট ছোট টিপস জানা থাকলে এই ধরনের সমস্যা হলে সমাধান করতে পারবেন। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক গরম খাবার খেতে গিয়ে জিভ পুড়ে গেলে কি করনীয়। টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত মুম্বই, বন্ধ ট্রেন পরিষেবা কয়েকটি ঘরোয়া টিপস জেনে রাখুন কখনো তাড়াহুড়ো চোটে যদি গরম খাবার খেয়ে ফেলেন তাহলে প্রথমে ঠান্ডা জাতীয় খাবার খান। যদি আইসক্রিম খেতে পারেন তাহলে খুবই ভালো। আর না হলে ঠান্ডা দইও খেতে পারেন। এতে জ্বালা ভাব কমবে। গরম খাবারের জিভ পুড়লে ঠান্ডা দুধও খেতে পারেন। এতে জ্বালা ভাব কমবে। আরামও লাগবে। জিভের পোড়াভাব কমাতে তিনি কিন্তু বেশ উপকারী। গরম খাবারের পুড়ে গেলে সেখানে একটু চিনি দিয়ে রাখুন। যখন গলতে থাকবে তখন আরাম লাগবে। জ্বালাভাবও অনেকটাই কমবে। এক্ষেত্রে মধুও কিন্তু বেশ উপকারী। জিভের জ্বালা ভাব যেমন কমবে, তেমন ফোসকা পড়ার হাত থেকে বাঁচাবে। তাই গরম খাবার খেতে গিয়ে জিভ পুড়ে গেলে সেই পোড়া জায়গায় মধু দিতে পারেন। পোড়া জায়গায় অ্যালোভেরা জেল লাগালেও আরাম পাওয়া যায়। এতে জ্বালা ভাব অনেকটাই কমে।

আরো পড়ুন »

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

ঠিকানা