বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

প্লেয়ার

কোন প্লেয়ার কোন দলে? প্রো কাবাডি সিজন 10-এর 12টি ফ্র্যাঞ্চাইজির সম্পূর্ণ স্কোয়াড

লাবনী চৌধুরী, ২৯ নভেম্বর: কোন প্লেয়ার কোন দলে? প্রো কাবাডি সিজন 10-এর 12টি ফ্র্যাঞ্চাইজির সম্পূর্ণ স্কোয়াড 2রা ডিসেম্বর 2023 থেকে 21শে ফেব্রুয়ারি 2024 পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে প্রো কাবাডি লিগ৷ প্রো কাবাডি ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি মুম্বাইতে দুই দিনের প্লেয়ার নিলামের পরে এই সিজনে নিজেদের স্কোয়াড তৈরি করেছে। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক 12টি ফ্র্যাঞ্চাইজির সম্পূর্ণ স্কোয়াড। আমি কাবাডি খেলতে চাই : ডেভিড ওয়ার্নার বেঙ্গল ওয়ারিয়র্স 19 জন খেলোয়াড় নিয়ে সেজে উঠেছে বেঙ্গল ওয়ারিয়র্স দলটি। তার মধ্যে সবথকে বেশি টাকার বিনিময়ে দলে নেওয়া হয়েছে মনিন্দর সিংকে। 2.12 কোটি টাকা দিয়ে মনিন্দরকে দলে নিয়েছে বেঙ্গল ওয়ারিয়র্স। আক্রমণকারী: মনিন্দর সিং, শ্রীকান্ত যাদব, সুযোগ বাবান গাইকার, পারশান্ত কুমার, আসলাম সাজা মোহাম্মদ থামবি, অক্ষয় জয়বন্ত বোদাকে, বিশ্বাস এস, চাই-মিং চ্যাং, নিতিন কুমার, আর গুহান, মহারুদ্র গার্জে। ডিফেন্ডার: শুভম শিন্ডে, বৈভব ভাউসাহেব গার্জে, আদিত্য এস শিন্ডে, অক্ষয় কুমার, শ্রেয়াস উম্বারদন্ড, দীপক অর্জুন শিন্ডে। অলরাউন্ডার: নিতিন রাওয়াল, ভইর অক্ষয় ভারত বেঙ্গালুরু বুলস 25 জন প্লেয়ার নিয়ে এই সিজেনে লড়তে প্রস্তুত বেঙ্গালুরু বুলস। সবথকে বেশি টাকার বিনিময়ে দলে নেওয়া হয়েছে বিকাশ কান্দোলাকে। 55.25 লাখ টাকা দিয়ে বিকাশ কান্দোলাকে নিয়ে নিজেদের স্কোয়াড সাজিয়েছে বেঙ্গালুরু বুলস। আক্রমণকারী: ভরত,বিকাশ কান্দোলা, নীরজ নারওয়াল, মনু, অভিষেক সিং, সুশীল, বান্টি, পিওতর পামুলক, অক্ষিত। ডিফেন্ডার: আমান, সৌরভ নন্দল, যশ হুদা, সুরজিত সিং, বিশাল, অঙ্কিত, পারতেক, সুন্দর, রক্ষিত, রোহিত কুমার, পোনপার্থিবন সুব্রামানিয়ান, মোঃ লিটন আলী, অরুলনান্থবাবু, আদিত্য শঙ্কর পোয়ার। অলরাউন্ডার: শচীন নারওয়াল, রণ সিং। দাবাং দিল্লি কে.সি দাবাং দিল্লি কে.সি- তে রয়েছে 20 জন খেলোয়াড়। সব থেকে বেশি টাকা দিয়ে দলে নেওয়া হয়েছে আশু মালিককে। 96.25 লাখ দিয়ে আশু মালিককে নিয়ে নিজেদের স্কোয়াড সাজিয়েছে দাবাং দিল্লি কে.সি। আক্রমণকারী: আশু মালিক, নবীন কুমার, আশিস নারওয়াল, সুরজ পানওয়ার, মনজিৎ, মেথু, মনু। ডিফেন্ডার: বিজয়, বিশাল ভরদ্বাজ, সুনীল, নিতিন চন্দেল, বালাসাহেব শাহজি যাদব, ফেলিক্স লি, যুবরাজ পান্ডেয়া, মোহিত, বিক্রান্ত, আশীষ, হিম্মত আন্তিল, যোগেশ । অলরাউন্ডার: আকাশ প্রশের। গুজরাট জায়ান্টস মোট 20 জন খেলোয়াড় রয়েছে গুজরাট জায়ান্টস-এ। সবথেকে বেশি 1.60 কোটি টাকা দিয়ে দলে নেওয়া হয়েছে ফাজেল আত্রাচালিকে। আক্রমণকারী: সোনু, পার্থেক দাহিয়া, রাকেশ, আরো জি বি, নিতিন, জগদীপ। ডিফেন্ডার: সৌরভ গুলিয়া, মনুজ, ফাজেল আত্রাচালী, সোমবীর, রবি কুমার, দীপক রাজেন্দ্র সিং, নীতেশ অলরাউন্ডার: রোহন সিং, আরকাম শেখ, মোহাম্মদ ইসমাঈল নবীবখশ, রোহিত গুলিয়া, বালাজি ডি, বিকাশ জগলন, জিতেন্দর যাদব। প্রো কাবাডি লিগের সিজন 10-এর সময়সূচী হরিয়ানা স্টিলার্স 21 জন খেলোয়াড় রয়েছে হরিয়ানা স্টিলার্স-এ। সবথেকে বেশি 1 কোটি টাকা দিয়ে দলে নেওয়া হয়েছে সিদ্ধার্থ দেশাইকে। আক্রমণকারী: বিনয়, কে প্রপাঞ্জন, সিদ্ধার্থ সিরিশ দেশাই, চন্দ্রন রঞ্জিত, ঘনশ্যাম রোকা মাগর, হাসান বলবুল, শিবম অনিল পাতরে, বিশাল এস. টেট, জয়া সূর্য এনএস। ডিফেন্ডার: নবীন, কঠোর, মোহিত, মনু, সানি, জয়দীপ, মোহিত, রাহুল শেঠপাল, হরদীপ, হিমাংশু চৌধুরী, রবীন্দ্র চৌহান। অলরাউন্ডার: আশীষ। জয়পুর পিঙ্ক প্যান্থার্স 19 জন প্লেয়ারেই ভরসা জয়পুর পিঙ্ক প্যান্থার্স- এর। সর্বোচ্চ 13 লক্ষ টাকা দিয়ে দলে নেওয়া হয়েছে রাহুল চৌধুরীকে। আক্রমণকারী: নবনীত, রাহুল চৌধুরী, অজিত ভি কুমার, অর্জুন দেশওয়াল, আমির হোসেন মোহাম্মদমালেক, দেবাঙ্ক, ভবানী রাজপুত, অভিমন্যু রঘুবংশী, শশাঙ্ক বি, অভিজিৎ মালিক । ডিফেন্ডার: লাকি শর্মা, সুনীল কুমার, সাহুল কুমার, অঙ্কুশ, অভিষেক কে.এস, আশীষ, রেজা মীরবাগেরী, লাভিশ, সুমিত। অলরাউন্ডার: আশীষ। পাটনা পাইরেটস 22 জন খেলোয়াড়ক্যা নিয়ে সেজে উঠেছে পাটনা পাইরেটস। সর্বোচ্চ 92 লক্ষ টাকা দিয়ে দলে নেওয়া হয়েছে মনজিতকে। আক্রমণকারী: শচীন, রঞ্জিত ভেঙ্কটরামনা নায়েক, অনুজ কুমার, রাকেশ নারওয়াল, মনজিৎ, কুনাল মেহতা, সুধাকর এম, ঝেং-ওয়েই চেন, সন্দীপ কুমার। ডিফেন্ডার: নীরজ কুমার, থিয়াগরাজন যুবরাজ, নবীন শর্মা, মনীশ, কৃষাণ, মহেন্দ্র চৌধুরী, অবিনন্দ সুভাষ, সঞ্জয়, দীপক কুমার। অলরাউন্ডার: ড্যানিয়েল ওমন্ডি ওধিয়াম্বো, সাজিন চন্দ্রশেখর, অঙ্কিত, রোহিত। পুনেরি পল্টন 18 জন প্লেয়ারে ভরসা রেখেছে পুনেরি পল্টন। সর্বোচ্চ 2.35 কোটি টাকার বিনিময়ে দলে এসেছে মোহাম্মদরেজা শাদলুই চাইয়ানেহ। আক্রমণকারী: পঙ্কজ মোহিতে, আদিত্য তুষার শিন্ডে, মোহিত গোয়াত, আকাশ সন্তোষ শিন্ডে, নিতিন। ডিফেন্ডার: অবিনেশ নাদরাজন, গৌরব খত্রী, সংকেত সাওয়ান্ত, বাদল তকদির সিং, বৈভব বালাসাহেব কাম্বলে, ঈশ্বর, হরদীপ, ওয়াহিদ রেজা আইমার, দাদাসো শিবাজী পূজারি, তুষার দত্তরায় আধাভাদে। অলরাউন্ডার: আসলাম মোস্তফা ইনামদার, মোহাম্মদরেজা শাদলুই ছিয়ানেহ, আহমদ মোস্তফা এনামদার। তামিল থালাইভাস তামিল থালাইভাস-এর স্কোয়াডে মোট খেলোয়াড় 21 জন। সর্বোচ্চ 31.60 লক্ষ টাকার বিনিময়ে দল পেয়েছে মাসানামুথু লক্ষনানকে। আক্রমণকারী: অজিঙ্কা অশোক পাওয়ার, হিমাংশু, নরেন্দ্র, হিমাংশু সিং, সেলভামণি কে, বিশাল চাহাল, নিতিন সিং, যতীন, মাসানামুথু লক্ষণানন, সতীশ কানন। ডিফেন্ডার: সাগর, হিমাংশু, এম অভিষেক, সাহিল, মোহিত, আশীষ, আমির হোসেন বাস্তামী, নীতেশ কুমার, রনক, মোহাম্মদরেজা কবৌদ্রহাঙ্গী। অলরাউন্ডার: রিতিক তেলেগু টাইটানস 18 জন খেলোয়াড় নিয়ে তৈরি তেলেগু টাইটানস। সব থেকে বেশি 2.605 কোটি দিয়ে দলে নেওয়া হয়েছে পবন কুমার সেহরাওয়াতকে। আক্রমণকারী: রজনীশ, বিনয়, পবন কুমার সেহরাওয়াত, ওমকার নারায়ণ পাতিল, প্রফুল সুদাম জাওয়ারে, রবিন চৌধুরী। ডিফেন্ডার: পরবেশ ভাইন্সওয়াল, মোহিত, নিতিন, অঙ্কিত, গৌরব দাহিয়া, অজিত পান্ডুরং পাওয়ার, মোহিত, মিলাদ জব্বারী। অলরাউন্ডার: শঙ্কর ভীমরাজ গদাই, সঞ্জীবী এস, ওমকার আর মোর, হামিদ মির্জাই নাদের। ইউ মুম্বা ইউ মুম্বা স্কোয়াডে মোট খেলোয়াড় 22 জন। সর্বোচ্চ 85 লক্ষ টাকার বিনিময়ে দল পেয়েছে গুমান সিংকে। আক্রমণকারী: জয় ভগবান, গুমান সিং, প্রণব বিনয় রানে, রূপেশ, শচীন, শিবম, হেদারলী একরামী, সৌরভ পার্থে, রোহিত যাদব, আলীরেজা মির্জাইয়ান, কুনাল। ডিফেন্ডার: সুরিন্দর সিং, রিংকু, শিবংশ ঠাকুর, গিরিশ মারুতি এরনাক, মহেন্দ্র সিং, সোমবীর, মুকিলান শানমুগাম, গোকুলকান্নান এম, বিট্টু। অলরাউন্ডার: বিশ্বনাথ ভি, আমীর মোহাম্মদ জাফরদানেশ ইউ.পি. যোদ্ধস 18 জন প্লেয়ার রয়েছে ইউ.পি. যোদ্ধস -এর স্কোয়াডে। সর্বোচ্চ 85 লক্ষ টাকা দিয়ে ইউ.পি. যোদ্ধস-এর ভরসা বিজয় মালিক। আক্রমণকারী: পারদীপ নারওয়াল, সুরেন্দর গিল, অনিল কুমার, মহিপাল, গুলভীর সিং, শিবম চৌধুরী, গগনা গৌড়া এইচআর। ডিফেন্ডার: নীতেশ কুমার, সুমিত, আশু সিং, কিরণ লক্ষ্মণ মাগার, হরেন্দ্র কুমার, হিতেশ। অলরাউন্ডার: গুরদীপ, নিতিন পানওয়ার, বিজয় মালিক, হেলভিক সিমুয়ু ওয়াঞ্জালা, সামুয়েল ওয়ানজালা ওয়াফুলা। স্টার স্পোর্টস নেটওয়ার্ক এবং ডিজনি+ হটস্টারে প্রো কাবাডি লিগের সিজেন 10 সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। ইভিএম নিউজ  

আরো পড়ুন »
আমি

আমি আমার কলোনিতে কাবাডি খেলতাম : রবি শাস্ত্রী

লাবনী চৌধুরী, ২৮ নভেম্বর: আমি আমার কলোনিতে কাবাডি খেলতাম : রবি শাস্ত্রী ‘আমি আমার কলোনিতে কাবাডি খেলতাম,’ এমনটাই জানালেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার রবি শাস্ত্রী প্রো কাবাডি লিগের সিজন 10-এর সময়সূচী বাতাসে কাবাডি জ্বর! কারণ শুরু হতে চলেছে কাবাডির মাইলস্টোন প্রো কাবাডি লিগের সিজন 10। 2ডিসেম্বর 2023 থেকে আহমেদাবাদে শুরু হতে চলেছে প্রো কাবাডি লিগ। 12টি ফ্র্যাঞ্চাইজির সুপারস্টাররা প্রতিটিতে কাবাডি প্রেমীদের বিনোদন দেওয়ার জন্য প্রস্তুত। প্রো কাবাডি লিগ সিজন 10 এর আগে ইন্টারেস্টিং মন্তব্য প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার রবি শাস্ত্রীর। এমনকি সঞ্জয় মাঞ্জরেকর মুম্বাইতে কাবাডি খেলার পাশাপাশি তাদের নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন। প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার রবি শাস্ত্রী বলেন, “আমি আমার কলোনিতে কাবাডি খেলতাম। এই খেলাটি খেলতে অনেক মজা পেতাম। বিকেলে আমরা খেলতাম, কলোনীর সবাই একসাথে খেলতে আসত। এমনকি 50 জনের একটি দল আমাদের খেলা দেখত।” এমনটাই বলেন রবি শাস্ত্রী। শাস্ত্রীও কাবাডিতে ফিটনেসের গুরুত্বের কথা বলেন। “কাবাডির জন্য একটি ভাল ফিটনেস খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মূল শক্তি এবং শরীরের নীচের দিকের অংশে জোর প্রয়োজন।” পাশাপাশি আরো এক প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার সঞ্জয় মাঞ্জরেকর মুম্বাইয়ে রাতে কাবাডি খেলা সম্পর্কে বলেন। “মুম্বাইতে একটি খুব প্রতিযোগিতামূলক কাবাডি নাইট হতো। প্রচুর লোক খেলা দেখতে আসত। আমিও বিশাল ভিড়ের সাথে খেলা দেখতে যেতাম।” মাঞ্জরেকর বলেন, তিনি কাবাডি খেলার চেয়ে ফাস্ট বোলারদের মুখোমুখি হওয়া সহজ বলে মনে করেন। “এটি একটি পরিচিতি খেলা। আমি কাবাডি খেলার চেয়ে হেলমেট পরা এবং ফাস্ট বোলিংয়ের মুখোমুখি হওয়া সহজ বলে মনে করি। এই খেলার জন্য একজনের নমনীয়তা, শক্তি ও স্মার্টনেস প্রয়োজন।” 2 ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে প্রো কাবাডির সিজন 10। উদ্বোধনী ম্যাচে গুজরাট জায়ান্টস মুখোমুখি হবে তামিল থালাইভাসের। আহমেদাবাদ লেগ 2 থেকে 7 ডিসেম্বর 2023 পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। তারপরে, লিগটি অন্যান্য PKL ফ্র্যাঞ্চাইজির বাকি 11টি শহরে স্থানান্তরিত হবে। 8-13 ডিসেম্বর 2023-বেঙ্গালুরু 15-20 ডিসেম্বর 2023 পুনে 22-27 ডিসেম্বর 2023 চেন্নাই 29 ডিসেম্বর 2023 – 3 জানুয়ারী 2024 নয়ডা, 5-10 জানুয়ারী 2024 মুম্বাই 12-17 জানুয়ারী 2024 জয়পুর 19-24 জানুয়ারী 2024 হায়দ্রাবাদ 26-31 জানুয়ারী 2024 পাটনা 2-7 ফেব্রুয়ারি 2024 দিল্লি 9-14 ফেব্রুয়ারি 2024কলকাতা 16-21 ফেব্রুয়ারি পঞ্চকুলা স্টার স্পোর্টস নেটওয়ার্ক এবং ডিজনি+ হটস্টারে প্রো কাবাডি লিগের সিজেন 10 সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। ইভিএম নিউজ

আরো পড়ুন »
লিগের

প্রো কাবাডি লিগের সিজন 10-এর সময়সূচী

লাবনী চৌধুরী, ২৮ নভেম্বর: প্রো কাবাডি লিগের সিজন 10-এর সময়সূচী প্রো কাবাডি লিগের সিজন 10 এর সময়সূচী ঘোষণা করা হয়েছে। উদ্বোধনী ম্যাচে গুজরাট জায়ান্টসদের মুখোমুখি লড়বে তেলেগু টাইটানরা। ক্রিকেটের পরে সবচেয়ে বড় স্পোর্টস প্রো কাবাডি লিগ: নবীন কুমার প্রো কাবাডি লিগ সিজন10-এর সময়সূচী: 2রা ডিসেম্বর 2023 থেকে 21শে ফেব্রুয়ারি 2024 পর্যন্ত লিগ চলবে। কাবাডি ভক্তরা তাদের প্রিয় তারকাদের তাদের নিজস্ব শহরে খেলতে দেখতে পারবেন। ব্লকবাস্টার উদ্বোধনী খেলায় তেলেগু টাইটানসের বিরুদ্ধে মুখোমুখি হবে গুজরাট জায়ান্টস। মাশাল স্পোর্টস, প্রো কাবাডি লিগের আয়োজকরা, যুগান্তকারী দশম আসরের সময়সূচী ঘোষণা করেছে। 12 টি শহরের ক্যারাভান ফর্ম্যাটে ফিরে আসছে প্রো কাবাডি লিগ সিজন 10। 2রা ডিসেম্বর 2023-এ আহমেদাবাদের ট্রান্সস্টাডিয়া স্টেডিয়ামের অ্যারেনায় শুরু হবে PKL। তারপর প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজি তাঁর হোম সিটিতে চলে যাবে। 2রা ডিসেম্বর 2023 থেকে 21শে ফেব্রুয়ারি 2024 পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে প্রো কাবাডি লিগ৷ এই সিজেনে প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজির হোম সিটি থেকে কাবাডি ভক্তদের স্টেডিয়ামে স্বাগত জানাতে রোমাঞ্চিত লিগ কর্তৃপক্ষ। 2-7 ডিসেম্বর 2023 পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে আহমেদাবাদ লেগ। তারপরে, লিগটি বিভিন্ন জায়গায় পরিচালিত হবে। 8-13 ডিসেম্বর 2023-বেঙ্গালুরু 15-20 ডিসেম্বর 2023 পুনে 22-27 ডিসেম্বর 2023 চেন্নাই 29 ডিসেম্বর 2023 – 3 জানুয়ারী 2024 নয়ডা, 5-10 জানুয়ারী 2024 মুম্বাই 12-17 জানুয়ারী 2024 জয়পুর 19-24 জানুয়ারী 2024 হায়দ্রাবাদ 26-31 জানুয়ারী 2024 পাটনা 2-7 ফেব্রুয়ারি 2024 দিল্লি 9-14 ফেব্রুয়ারি 2024কলকাতা 16-21 ফেব্রুয়ারি পঞ্চকুলা আমি কাবাডি খেলতে চাই : ডেভিড ওয়ার্নার প্রো কাবাডি লিগের দশম সিজেন শুরু হবে গুজরাট জায়ান্টস এবং তেলেগু টাইটানসের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা শুরুর মধ্যেদিয়ে। পবন সেহরাওয়াত, ফাজেল আত্রাচালি, আজিঙ্কা পাওয়ার এবং নবীন কুমারের মতো শীর্ষ তারকারা উচ্চ-অক্টেন সংঘর্ষের মাধ্যমে ভক্তদের মন্ত্রমুগ্ধ করতে ইতিমধ্যে প্রস্তুত। প্রো কাবাডি লিগ সিজন 10-এর সময়সূচী সম্পর্কে বলতে গিয়ে, অনুপম গোস্বামী বলেছেন, “মাশাল স্পোর্টস প্রো কাবাডি সিজন 10 ম্যাচের সময়সূচী প্রকাশ করতে পেরে আনন্দিত। আগের সিজনগুলোর মতো, এই সিজনের সময়সূচীটি কাবাডি ফ্যানদের আচরণ এবং অনুভূতির পাশাপাশি আমাদের লিগের যুগান্তকারী দশম সিজন হতে চলেছে। গোটা সিজনজুড়ে উচ্চ-মানের এবং প্রাসঙ্গিক প্রতিযোগিতা টিকিয়ে রাখার বিষয়ে একাধিক বিবেচনা এবং সূক্ষ্ম পরিকল্পনার ফল।” ইভিএম নিউজ

আরো পড়ুন »
আমি

আমি কাবাডি খেলতে চাই : ডেভিড ওয়ার্নার

লাবনী চৌধুরী, ২৮ নভেম্বর: আমি কাবাডি খেলতে চাই : ডেভিড ওয়ার্নার প্রো কাবাডি লিগের সুপারস্টারদের গতিবিধি দেখে মুগ্ধ অস্ট্রেলিয়ান ও দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটাররা! টুর্নামেন্টের হাইলাইটগুলি দেখে হাই-ফ্লায়ার পবন সেহরাওয়াতের পাশাপাশি বিশেষভাবে মুগ্ধ হয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটার স্টিভ স্মিথ। তিনি বলেন, “আমি তাঁদের পছন্দ করি যে সবার উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।” ক্রিকেটের পরে সবচেয়ে বড় স্পোর্টস প্রো কাবাডি লিগ: নবীন কুমার এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলার বলেছেন, “এই খেলার জন্য অনেক চটপট এবং শক্তি হওয়া প্রয়োজন। আমি এই খেলার জন্য এইডেন মার্করামকে মনোনীত করব।” অস্ট্রেলিয়ান ওপেনিং ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার এই খেলাটি খেলতে চান কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেছিলেন, “আমি অবশ্যই খেলাটি চেষ্টা করতে চাই।” এমনকি ওয়ার্নার স্টিভ স্মিথ এবং প্যাট কামিন্সের সাথে খেলতে চান। পাশাপাশি তিনি মার্কাস স্টয়নিসকে কাবাডির জন্য মনোনীত করেন। প্রো কাবাডি লিগের দশম সিজেন 2023 সালের 2 ডিসেম্বর থেকে আহমেদাবাদে শুরু হতে চলেছে। এই বছরের উদ্বোধনী ম্যাচে লড়তে চলেছে গুজরাট জায়ান্টস ও তেলেগু টাইটানস। স্টার স্পোর্টস নেটওয়ার্ক এবং ডিজনি+ হটস্টারে প্রো কাবাডি লিগের সিজেন 10 সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। ইভিএম নিউজ

আরো পড়ুন »
সবচেয়ে

ক্রিকেটের পরে সবচেয়ে বড় স্পোর্টস প্রো কাবাডি লিগ: নবীন কুমার

 লাবনী চৌধুরী, ২৮ নভেম্বর: ক্রিকেটের পরে সবচেয়ে বড় স্পোর্টস প্রো কাবাডি লিগ: নবীন কুমার ক্রিকেটের পরে সবচেয়ে বড় স্পোর্টস প্রো কবাডি লিগ। এমনটাই মনে করেন নবীন কুমার। প্রো কাবাডি লিগের গুরুত্বপূর্ণ 10 তম সিজেন শুরু হতে চলেছে। আহমেদাবাদে 2 ডিসেম্বর 2023 থেকে শুরু হতে চলেছে প্রো কাবাডি লিগ। এই বছর 10 তম সিজেনে প্রো কাবাডি লিগ। যা প্রো কাবাডি লিগের গৌরবময় যাত্রা উদযাপন করার সময়। আমরা ল্যান্ডমার্ক সংস্করণের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি,  PKL MVP-এর বিশেষ স্মৃতি কনটেন্ট সিরিজের মাধ্যমে প্রো কাবাডি লিগ যখন কিছু বড় মুহুর্তের দিকে ফিরে তাকাবে। তখন PKL কীভাবে খেলোয়াড়দের জীবন বদলে দিয়েছে সে সম্পর্কে বলবেন মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার অ্যাওয়ার্ড জিতে নেওয়া সকল খেলোয়াড়রা। ভোটে জিতলে রাজ্যের নাম পরিবর্তন| প্রতিশ্রুতি যোগীর প্রো কাবাডি লিগের বিদ্যুত তরুণ প্রডিজিদের মধ্যে, 5 ফুট 10-ইঞ্চি লম্বা রেইডার, যিনি 2018 সালে এসে থেকেই ঝড় তুলেছেন মাঠে। নবীন কুমার, যিনি দাবাং দিল্লি কে.সি.-তে একজন নতুন তরুণ খেলোয়াড় হিসাবে পথ তৈরি করেছেন। সিজন 6-এ তারা তখন থেকেই তাদের গো-টু ম্যান হয়ে উঠেছে। 2021 সালের ডিসেম্বরে 500 রেইড পয়েন্ট অর্জন করতে তৎকালীন 21 বছর বয়সী খেলোয়াড়। মাত্র 47 ম্যাচ খেলে PKL-এ দ্রুততম খেলোয়াড়ের মাইলফলক ছুয়েছিল। তার সাথে, তার 28 টা পরপর সুপার 10 । PKL এর ইতিহাসে যা চূড়ান্ত। ঘরোয়া নামেও প্রতিষ্ঠিত করেছে কাবাডি জগতের সকলে। এখন দাবাং দিল্লি কে.সি.-এর সাথে তার পঞ্চম মরসুমে, নবীন উত্তেজনায় পূর্ণ এবং দলের জন্য একটি ঐতিহাসিক 10 তম অভিযানের জন্য উন্মুখ। তিনি বলেন, “ক্রিকেটের পরে, এটি এমন একটি লিগ যেটি 10 ​​বছর পূর্ণ করেছে। এবং প্রতি বছর উত্তেজনাপূর্ণ নতুন প্রতিভা আসা এবং বর্তমান খেলোয়াড়রা ধারাবাহিকভাবে ভাল খেলে আসছে। প্রো কাবাডি লিগ তার ধারণার থেকেও অনেক দূর এগিয়েছে, 8 টি দল থেকে 12টি দল, 8 টি শহর থেকে 12 টি শহর হয়েছে। এটি কাবাডি খেলার জন্য একটি বিশাল কৃতিত্ব। আমরা দেখেছি গত 10 বছরে প্রো কাবাডি লিগের দরুন কাবাডি প্রচুর জনপ্রিয়তা পেয়েছে। যা আগে কখনও হয়নি।” প্রো কাবাডি লিগ খেলার সময়ে তাঁর সেরা মুহূর্তের কথা স্মরণ করে নবীন বলেছেন, “এটা সেই মুহূর্ত যখন 8 টি সিজনের পর প্রথমবার আমরা ট্রফি নিয়েছিলাম। এটি আমার কাছে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে অবিস্মরণীয় স্মৃতিগুলির মধ্যে একটি। 2014 সালে প্রো কাবাডি লিগ শুরু হওয়ার পর থেকে আমি ম্যচগুলি টিভিতে দেখতাম। আমি সবসময় সেই ট্রফি জেতার স্বপ্ন দেখতাম, তাই এটি সত্যিই বিশেষ মুহূর্ত ছিল।” তবে ভুলে গেলে চলবে না, নবীন কুমার ‘নবীন এক্সপ্রেস’ নামে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন। সিজন 7 এবং সিজন 8-এ সবচেয়ে মূল্যবান প্লেয়ার (MVP) নির্বাচিত হয়েছিলেন। “আমি মনে করি কোচ ও দলের অভিজ্ঞ খেলোয়াড় প্রত্যেকের কাছ থেকেই দুর্দান্ত সমর্থন ছিল। আমরা এই বিশ্বাস এবং আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলতে নেমেছিলাম যে আমাদের ট্রফি নিতেই হবে। এবং সেরা প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছিল সেই লক্ষ্য অর্জনের জন্য। আমি মনে করি এটি শুধুমাত্র আপনার ইচ্ছাশক্তি, আপনার ক্ষমতার উপর আস্থার পাশাপাশি বিশ্বাস থাকতে হবে যে আপনি জয়ী হতে পারেন। যা আমাদের শিরোনামে নিয়ে গেছে,” এমনটাই জানিয়েছেন নবীন কুমার। আসন্ন মরসুমের অপেক্ষায় ডায়নামিক রেইডার তার চোখ আবার সিলভারের পাত্রে সেট করেছে কারণ সে দাবাং দিল্লি কে.সি. তাদের দ্বিতীয় প্রো কাবাডি লিগ শিরোপা। “এই সিজেনের লক্ষ্য নিজেদের আবার চ্যাম্পিয়ন হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করা। তবে ব্যক্তিগত স্তরে, আমি যে কোনও ইনজুরি এড়াতে চাই এবং পুরো ক্যাম্পেইন জুড়ে ফিট থাকার দিকে মনোনিবেশ করব। আমি 10 তম মরসুম শুরু হওয়ার জন্য অত্যন্ত্য উদগ্রীব। কারণ এটি কেবল লিগের জন্য নয়, আমাদের কাবাডি খেলার জন্য সত্যই একটি মাইলফলক।” বলেন নবীন কুমার। ইভিএম নিউজ

আরো পড়ুন »

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

বিশ্ব জুড়ে

গুরুত্বপূর্ণ খবর

ঠিকানা